শুক্রবার, ৭ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Sex Cams
সর্বশেষ সংবাদ
অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «  

‘সেনাবাহিনী ক্ষমতা নেয়ার সাহস পাবে না’



3. songsodনিউজ ডেস্ক::
সেনাবাহিনী আর কোন অবৈধভাবে ক্ষমতা নেয়ার সাহস পাবে না বলে সংসদকে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম। সোমবার দশম জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশনের ২০তম বৈঠকে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপি নের্তৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধ সম্পর্কে সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলির সদস্য এ কথা বলেন।

শেখ সেলিম বলেন, ‘সেনাবাহিনী কোনদিন ক্ষমতা নেয়ার সাহস পাবে না। কারণ অবৈধভাবে ক্ষমতা গ্রহণ করলে কেউ তার সর্বোচ্চ শাস্তি হবে মৃত্যুদন্ড।’ তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া ভাবছেন, তৃতীয় কোন শক্তি এসে উনাকে ক্ষমতায় বসিয়ে দিবেন। কিন্তু সেই দিন আর নেই। সেনাবাহিনী এখন আর কাউকে ক্ষমতায় বসাতে পারবে না। আর কোন জুনিয়র দোরমা-ছোড়মা ফুচকে জুনিয়র আর্মি অফিসার উনাকে আশ্বাস দিলে তাতে লাভ হবে না, ক্ষমতায়ও বসাতে পারবে না।

শেখ সেলিম বলেন, অবৈধভাবে আর ক্ষমতায় যাওয়ার সুযোগ নেই। যারা ওই চিন্তা করছেন তারা বোকার স্বর্গে বাস করছেন। তৃতীয় শক্তি নামে আর কেউ কোন দিন ক্ষমতায় আসতে পারবেনা। এখন থেকে প্রথম শক্তিই ক্ষমতায় থাকবে। কেননা, দেশে এখন আইন হয়েছে, যারা অবৈধ ভাবে ক্ষমতা দখল করতে চায় তাদের মৃত্যুদন্ডের বিধান রয়েছে। তারা জানেন, এর পরিনতি কি হতে পারে। মঈনুদ্দিন-ফকরুদ্দিনের কি পরিনতি তা সকলে জানেন। তারা এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছে। আর খালেদা জিয়া কি করে বুঝলেন, সেনা বাহিনী ক্ষমতা দখল করে তাকেই প্রধানমন্ত্রী বানাবেন। খালেদা মূর্খের স্বর্গে বাস করছেন। দেশের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার বন্ধ করতে হবে বেগম খালেদা জিয়াকে। তিনি যে ষড়যন্ত্র করছেন তা বন্ধ করতে হবে। নয়তো জনগণ এই ষড়যন্ত্রের দাঁত ভাঙা জবাব দেবে।

বিদেশি কূটনীতিকরা সরকার এবং খালেদা জিয়ার মধ্যে আলোচনার যে কথা বলেছেন তা সরাসরি নাকচ করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ সেলিম বলেন, ‘হুঁ ইজ খালেদা জিয়া। তিনি সরকারেও নেই বিরোধী দলেও নেই। তার সঙ্গে কোন আলোচনা হতে পারেনা। কেন বিদেশী কূটনীতিকরা তার সঙ্গে বসছেন। এদেশে কোন বিদেশী হস্তক্ষেপ গ্রহণ করা হবে না। বিদেশিদের মনে রাখতে হবে যদি কূটনৈতিক শিষ্টাচার বর্হিভূত কোন কাজ করেন তাহলে সরকার ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবেন।’

তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের জন্মদাতা। তার আশ্রয় প্রশয়ে দেশে জঙ্গিবাদের উত্থান হয়েছে । দেশে নারকীয় পরিবেশ তৈরি করেছেন। দেশের মানুষকে অশান্তিতে রেখেছেন। দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন। তার সঙ্গে কোন আলোচনা হতে পারেনা।

খালেদা একের পর এক মানুষ হত্যা করে দেশে অস্থির অবস্থা সৃষ্টি করেছে। যারা লাশের ওপর লাশ ফেলে ক্ষমতায় যেতে চায় তাদের সঙ্গে কোন আলোচনা হতে পারেনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কখনই ওই জঙ্গি খুনিদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে পারেনা। বসবেন না। সেলিম বলেন, বেগম খালেদা জিয়া আগে ছিলেন তালেবান এখন তিনি আইএস নেত্রী হয়েছেন। আইএস যেমন গলা কেটে মানুষ খুন করে চলেছেন। বেগম জিয়াও পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ হত্যা করে চলেছে।

তিনি বলেন, যারা দেশে সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে মানুষ হত্যা করে চলেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দেশের সাধারণ মানুষকে পুড়িয়ে মেরে কেউ পার পাবেনা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: