বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «  

শীঘ্রই সিলেটের বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধান হবে



jalani upodestaনিউজ ডেস্ক :: বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট সার্কিট হাউজে সিলেটে কর্মরত বিদ্যুৎ সেক্টরের কর্মকর্তাদের নিয়ে এক পর্যালোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সভায় উপস্হিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম।

প্রধান প্রকৌশলীর নেতৃত্বে এই কমিটি আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বিদ্যুতের সমস্যা চিহ্নিত করে ৩০ দিনের মধ্যে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ নিশ্চিতকরণে একটি প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে প্রেরণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সবায় ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম বলেন, সিলেটে বিদ্যুতের অভাব থাকার কথা নয়। তবুও এখানে বিদ্যুৎ বিপর্যয় হচ্ছে। খুব শিগগিরই এই সমস্যা চিহ্নিত করে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ চিহ্নিত করা হবে।

তিনি বলেন, সিলেট বিভিন্ন কারণে গুরুত্বপূর্ণ এলাকা। এখানে নতুন নতুন শিল্পকারখানা গড়ে উঠতে শুরু করেছে। আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম ও বিভাগের গুরুত্বপূর্ণ ওসমানী মেডিকেল হাসপাতাল থাকায় নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ আরো জরুরী হয়ে উঠেছে। তাই এ উদ্যোগ যত দ্রুত সম্ভব গ্রহণ করা জরুরী।

সভায় ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেন, ২০০৯ সালে বিদ্যুতের উৎপাদন ছিল মাত্র সাড়ে ৩ হাজার মেগাওয়াট। বর্তমানে উৎপাদন বেড়ে হয়েছে ১৩ হাজার মেগাওয়াট। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ়তা ও সাহসিকতায় এ লক্ষ্য অর্জন করা সম্ভব হয়েছে। আগামী ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশের ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

ড. তৌফিক-ই-ইলাহী সংশ্লিষ্টদের আন্তরিকভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। কেউ ঠিকমত কাজ না করলে নিজে পিছিয়ে থাকবে। তার জন্য দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা থমকে দাঁড়াবে না।

বিদ্যুৎ সেক্টরের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা সঠিকভাবে কাজ করুন। প্রধানমন্ত্রী আপনাদের উপর বিশেষভাবে আস্থা রেখেছেন। আপনারা বিদ্যুতের উন্নয়নে বাস্তবসম্মত যে কোন প্রস্তাব দিলে তিনি সাথে সাথে তা গ্রহণ করবেন।

সভায় গ্রাহক ও জনপ্রতিনিধিদের পক্ষ থেকে বিভিন্ন অভিযোগ উত্থাপন করা হয়। এর প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জবাব দেন। সম্প্রতি কাল বৈশাখী ঝড়ে বিদ্যুতের খুঁটি, লাইন বিপর্যস্ত হওয়ায় বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হচ্ছে জানিয়ে তারা বলেন, প্রয়োজনীয় মেরামত শেষে দ্রুততম সময়ে এসব এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হচ্ছে।

সভায় বক্তব্য রাখেন বিদ্যুৎ সচিব মনোয়ার ইসলাম, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান ইশতিয়াক আহমেদ, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক শাহীনুল ইসলাম খান, পল্লী বিদুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মইন উদ্দিন, প্রধান প্রকৌশলী রতন সরকার, পাওয়ার গ্রীডের এমডি মাসুম আল বেরুনী, সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার জামাল উদ্দিন আহমদ, জেলা প্রশাসক মো. শহিদুল ইসলাম, হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: