শুক্রবার, ২৪ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «  

লন্ডনে সংক্ষিপ্ত সফরে মিশেল ওবামাঃ বাঙ্গালী অধ্যুষিত স্কুল পরিদর্শন



MObama_THBপ্রবাস ডেস্ক :: মঙ্গলবার মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা বাঙালী অধ্যুষিত লন্ডনের বারা টাওয়ার হ্যামলেটসের মালবারি গ্যার্লস স্কুল পরিদর্শনে আসেন।এ সময় তিনি বলেন, শিক্ষাই সফলতার চাবিকাঠি, শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। শিক্ষাই হলো সব অধিকার আদায়ের অন্যতম হাতিয়ার।
তাই তিনি শিক্ষা থেকে দূরে না যাওয়ারও আহবান জানান মালবারি স্কুলের ছাত্রীদের প্রতি। নারী শিক্ষা প্রসারের অংশ হিসেবে তিনি এ স্কুল পরিদর্শন করেন।
এ সময় তিনি ছাত্রীদের মোটিবেসনাল স্পিস বা উদ্ভুদ্ধ মুলক বক্তব্য প্রদান করেন। বক্তব্যে তিনি তার জীবনের অতীত অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন। বিশেষ করে ছাত্রী জীবনে তার পরিশ্রম ও বাঁধা বিপত্তি জয় করার কথা তুলে ধরেন।
তিনি বলেন, শিকাগোতে একটি খেটে খাওয়া পরিবারে তার জন্ম। জীবন ধারনের জন্য খুবই পরিশ্রম করতে হত তাঁদের। তার বাবা অপারেটর হিসেবে শহরের ওয়াটার প্লান্টে কাজ করত আর মা ছিলেন গৃহিণী। তাঁরা খুব ছোট একটি ফ্লাটে থাকত। একরুমের মধ্যে কাঠ দিয়ে দুইভাগ করা অর্ধেকে তিনি থাকতেন আর অর্ধেকে তাঁর বড় ভাই থাকতো। যার ফলে সেটা খুব ভরসর ছিল না, শুধু একটা বিছানা আর একটা পড়ার টেবিলের জায়গা ছিল। তিনি বড় হয়েছেন যৌথ পরিবারে তাই তাঁদের ফ্লাট সবসময় ব্যস্ত থাকত, আত্মীয় স্বজন ও আসা যাওয়া করতো। পড়াশুনার ও উপযুক্ত পরিবেশ ছিল না কারন দেখা যেত কেউ হয়তো টিভি দেখছে আবার কেউ কথা বলছে। তাই তিনি খুব ভোরেই ঘুম থেকে উঠতেন স্কুলের দেয়া বাড়ীর কাজ গুলো শেষ করতে। পড়াশুনার পাশাপাশি আমাদের যৌথ পরিবারের দায়িত্বও পালন করতে হয়েছে। এখনও মনে আছে, তাঁর নিজের কোন সময় ছিল না। তারপরও পরিবার আমাদের কাছে আশা করতো পড়াশুনায় ভাল করা এবং পরিবারের কাজ করা। তাঁরা সব সময় বলতো পড়াশুনাই আসল, আর এর মাধ্যমেই জয়ী হওয়া যায়, বা ভাল পড়াশুনার মাধ্যমেই ডাক্তার বা বিজ্ঞানী যে কোন কিছু হওয়া যায়।
তিনি আরো বলেন, আমার মনে আছে মানুষ আমাকে আফ্রিকান হিসেবে বলতো তোমার লক্ষ্য বেশী বড় কর না, কিন্তু আমি স্বপ্ন দেখেছি বড় আর সব বাঁধা অতিক্রম করে সফল হয়েছি।
তিনি মালবারি গ্যার্লস স্কুলের ছাত্রীদের স্বপ্ন দেখতে বলেন এবং তা পুরন করার জন্য কাজ করার প্রত্যাশা করেন।

যুক্তরাজ্যের সংক্ষিপ্ত সফরে তিনি কেঞ্জিনটনে প্রিন্স হ্যাঁরীর সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং ডাউনিং ষ্ট্রীটে প্রধানমন্ত্রীর চায়ের নিমন্ত্রনে অংশ নেন। এ সময় সাথে তাঁর দুই কন্যাও উপস্থিত ছিল।
উল্লেখ্য, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ‘লেটস গ্যার্ল লার্ন প্রোগ্রাম’ এর অংশ হিসেবে যুক্তরাজ্যের টাওয়ার হ্যামলেটসের এ স্কুলে আসেন ফার্স্টলেডি মিশেল ওবামা। বিশ্বের পশ্চাৎপদ জনগোষ্ঠীর বালিকাদের শিক্ষায় অগ্রগতি সাধন করাই এ ‘লেটস গ্যার্ল লার্ন প্রোগ্রাম’ এর উদ্দেশ্য।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: