মঙ্গলবার, ৭ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

রাজশাহীতে ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতিকে গুলি করে রগ কর্তন



12. guliনিউজ ডেস্ক::
রাজশাহীতে ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান ইয়ামিনকে গুলি করে তার হাত-পায়ের রগ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় তার সাথে থাকা ইসতিয়াক আহমেদ ঈসা নামে এক ছাত্রলীগ কর্মীকেও কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে নগরীর বিনোদপুর বাজারে কমেলা হক ডিগ্রি কলেজের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা গেছে , মঙ্গলবার রাতে চায়ের দোকানে বসে ইয়ামিন-ঈসাসহ কয়েকজন ছাত্রলীগ-যুবলীগের কর্মী আড্ডা দিচ্ছিল। এ সময় হঠাৎ করেই ১৫-২০ জন মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা এসে কয়েকটি ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটায়। এতে সবাই আতঙ্কিত হয়ে দিগ্বিদিক ছুটতে থাকে। এ সময় তারা ইয়ামিনের পায়ে গুলি করে। পরে তিনি উঠে পালাতে চেষ্টা করলে দুর্বৃত্তরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা করে। তারপর তার হাত-পায়ের রগ কেটে দেয় তারা। পরে ছাত্রলীগ কর্মী ঈসা তাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা তাকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি করে। তারা বর্তমানে রামেকে চিকিৎসাধীন আছে।

এ বিষয়ে মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আব্দুর রউফ জানান, কয়েকজন মুখোশধারী দুর্বৃত্ত হঠাৎ করেই কয়েকটি ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটায় এবং গুলি করে। এতে জনগণ আতঙ্কিত হয়ে পালিয়ে যায়। তবে এসময় চা পান করতে থাকা ইয়ামিন আটকে যায়। পরে ঈসা পালাতে না পারলে দুর্বুত্তরা তাদের ওপর হামলা করে। এতে ইয়ামিনকে গুলি করে রগ কেটে দেয়। এছাড়া ঈসাকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে দুর্বৃত্তরা।
দুষ্কৃতিকারীদের আটকের জন্য পুলিশ অভিযানে নেমেছে বলেও জানান তিনি। আহত ইয়ামিন নগরীর ৩০ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি ও মির্জাপুর গ্রামের আসাদের ছেলে। এছাড়া ঈসা একই গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা গাজিউল গাজীর ছেলে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: