বুধবার, ৩ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

যেকোনো মুহূর্তে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ, চরম উদ্বেগ!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: যেকোনো মুহূর্তে ক্ষেপনাস্ত্র কিংবা রকেট নিক্ষেপের প্রস্তুতি নিচ্ছে উত্তর কোরিয়া। যা চরম উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের জন্য।স্যাটেলাইট থেকে তোলা উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়াং-এর আশেপাশের কিছু ছবি দেখে এমনটি আশঙ্কা করেছেন অস্ত্র বিশেষজ্ঞারা।

সানুমডং নামে পরিচিত একটি স্থাপনার কাছে গত কয়েক দিন ধরে তৎপরতা বেড়ে যেতেও দেখা গেছে, যেখানে উত্তর কোরিয়া তার বেশিরভাগ ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও রকেট জড়ো করেছে।উত্তর কোরিয়ায় রকেট নিক্ষেপের মূল স্থানটি পুনর্নির্মাণ করা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের দুটো গবেষণা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে একথা বলার পরই অস্ত্র বিশেষজ্ঞরা এসব কথা বলছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে স্থাপনায় দেশটি সবচেয়ে বেশি পরিমাণে ক্ষেপণাস্ত্র ও রকেট মজুদ করেছে, তাকে কেন্দ্র করে তৎপরতাও বেড়ে গেছে।

রাজধানী পিয়ংইয়াং-এর কাছে এই স্থাপনাটি সানুমডং নামে পরিচিত। স্যাটেলাইট থেকে তোলা ছবিতে দেখা গেছে, এই স্থাপনাটির আশেপাশে বড় বড় যান চলাচল করছে। এর আগেও এরকম পরিস্থিতিতে বোঝা গেছে যে দেশটি উৎক্ষেপণের জন্যে সেখানে ক্ষেপণাস্ত্র কিংবা রকেট জড়ো করছে।

সৌল থেকে বিবিসির সংবাদদাতা লরা বিকার বলছেন, রকেট নিক্ষেপের জন্যে উত্তর কোরিয়ার প্রধান যে স্থাপনা সেটিও নতুন করে পুনর্গঠন করা হয়েছে বলে বিশ্লেষকরা দাবি করেছেন।

বলা হচ্ছে, যে কোনো সময়ে এখান থেকে পরীক্ষামূলকভাবে রকেট কিম্বা ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হতে পারে। তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, তারা ধারণা করছেন যে এই মুহূর্তে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নয়, বরং উপগ্রহ উৎক্ষেপণের জন্যেই প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।যুক্তরাষ্ট্র বলছে, তারপরেও এটা হবে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দেয়া উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং আনের প্রতিশ্রুতির লঙ্ঘন।

গত সপ্তাহে এই দুই নেতার মধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকও ব্যর্থ হয়েছে। তবে উত্তর কোরিয়ার জনগণকে এই খবরটি বহু পরে দেয়া হয়েছে যে ওই বৈঠকে শেষ পর্যন্ত কোনো সমঝোতা হয়নি।দু’হাজার সতের সালের পর থেকে উত্তর কোরিয়া কোনো ধরনের পরমাণু কিম্বা ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানো থেকে বিরত রয়েছে।

সূত্র: বিবিসি

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: