শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক ইজিএনের নতুন সভাপতি, অনুরূপ সম্পাদক  » «   ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «  

যুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা ১ লাখ, এখন হয়েগেছে ৩ লাখ!



sonodনিউজ ড্স্কে::
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহম্মেদ বীরবিক্রম বলেছেন, ১৯৭১ সালে যুদ্ধক্ষেত্রে কম-বেশি এক লাখ মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। এখন মুক্তিযোদ্ধা তিন লাখে পরিণত হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন দাবি করেন।

হাফিজউদ্দিন আহম্মেদ বলেন, এই সরকার মুক্তিযুদ্ধকে একটি পণ্যে পরিণত করেছে। রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিল করার জন্য তারা মুক্তিযুদ্ধকে ব্যবহার করছে।

সরকারের তৈরি মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাকে ‘অবৈধ’ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, ‘১৯৭১ সালে যুদ্ধক্ষেত্রে কম-বেশি এক লাখ মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। এখন মুক্তিযোদ্ধা তিন লাখে পরিণত হয়েছে।’

এই বীরবিক্রম বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সই নিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের সার্টিফিকেট নিতে হবে, এটি দুঃখজনক। মুক্তিযুদ্ধের সেনাপ্রধান বেঁচে না থাকলেও উপ-সেনাপ্রধান এ কে খন্দকার এখনো বেঁচে আছেন। মুক্তিযোদ্ধাদের সনদ দেয়ার অধিকার যুদ্ধক্ষেত্রের সেনাপ্রধানেরই থাকা উচিত।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: