শুক্রবার, ১৪ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «  

মার্কিন অভিবাসীদের বৈধতা দিচ্ছেন বারাক ওবামা



obamaআন্তর্জাতিক ডেস্ক: মার্কিন অভিবাসীদের বৈধতা দিতে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।খুব শিগগিরই তার নিবার্হী ক্ষমতা প্রয়োগ করে দেশটির অভিবাসী নীতি পরিবর্তন করতে যাচ্ছেন বলে গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়েছে।
নিউ ইয়র্ক টাইমস ও ফক্স নিউজের খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে বৈধ অভিবাসীদের সন্তানরা নতুন এ পরিকল্পনায় নাগরিকত্ব পাবে। যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত অনিবন্ধিত ৫০ লাখের বেশি অভিবাসী রয়েছে।
তবে ওবামা ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন পার্লামেন্টের উভয়কক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া বিরোধীদল রিপাবলিকান পার্টি। দলটি অভিবাসীদের ক্ষেত্রে কঠোর নীতি গ্রহণ করে থাকে।
সম্প্রতি নিবন্ধন নেই এমন বৈধ অভিবাসীর সন্তানদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ নিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভ করে অভিবাসীরা।
কংগ্রেসের রিপাবলিকান সদস্যরা বলেছেন, এ রকম পদক্ষেপ প্রেসিডেন্ট ওবামা কর্র্তৃপক্ষের অধীনে। তবে পার্লামেন্টের স্পিকার ও রিপাবলিকান নেতা জন বোয়েনার সাংবাদিকদের জানান, এ রকম পদক্ষেপ নিলে প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আমরা তীব্র লড়াই করব।
দেশের অভিবাসী ব্যবস্থা উন্নতির উপায় খুঁজে বের করার জন্য প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটের হবু নেতা মিচ ম্যাককোনেল। তিনি বলেন, ‘প্রেসিডেন্টকে আগে অনেকবার বলা হয়েছে, আজও বলছি- নির্বাহী ক্ষমতার মাধ্যমে অভিবাসী নীতি পরিবর্তন করা হলে এর স্থায়ী কোনো পরিবর্তন হবে না।’
তার এ অভিবাসী নীতিটি শুধু বিরোধী দলের বাধার মুখেই পড়েনি। খোদ নিজ দল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির নেতারা এর বিরোধিতা করেছেন। আগামী ১১ ডিসেম্বর কংগ্রেসে বিলটি পাস করানোর পরই তা বাস্তবায়ন করার জন্য ওবামার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দলটির কংগ্রেস নেতা হ্যারি রেইড। তবে কংগ্রেসে বিলটি পাস হওয়ার সম্ভাবনা কম। কারণ কংগ্রেসের (পার্লামেন্ট) উভয় কক্ষই বিরোধীদের নিয়ন্ত্রণে।
আফ্রিকা, এশিয়া, ল্যাটিন আমেরিকা, ইউরোপ থেকে প্রতিবছর হাজারো লোক অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করে থাকে। ওবামা তাদের বৈধতা দিতে অনেক দিনে থেকে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন।
প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ওবামার জয়ী হওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসীদের ভোট অনেক কাজে দিয়েছিল। আর মাত্র দুই বছর ক্ষমতায় রয়েছেন তিনি। আর এ সময়ের মধ্যে ওবামা তার নির্বাহী ক্ষমতা মাধ্যমে বিলটি আইনে রূপান্তরিত করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: