বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক ইজিএনের নতুন সভাপতি, অনুরূপ সম্পাদক  » «   ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «  

মাছধরার উৎসব !



18. Mymensingh-PICনিউজ ডেস্ক: আত্মীয়স্বজন, প্রতিবেশিসহ সকলে একত্রিত হয়ে আনন্দ-উল্লাস করে বিল বা জলাশয়ে মাছ ধরার আয়োজনকে বলা হয় ‘হাইত’। অনেক কাল আগে থেকেই হেমন্ত কালে ময়মনসিংহের বিভিন্ন এলাকায় খাল-বিল ও নানা ধরনের জলাশয়ে এ ধরনের হাইতের আয়োজন করে থাকে বিল পাড়ের মানুষেরা।
তাঁরা ইচ্ছে করলে নিজেরাই মাছ ধরে নিতে পারে। কিন্তু তা না করে শত বছরের ঐতিহ্য অনুসরণ করে উৎসবের আমেজ ফুঁটিয়ে তুলতেই শত শত মানুষকে সাথে নিয়ে তারা মাছ ধরার উৎসব করে থাকেন ।
বুধবার ভোরে তেমনি এক হাইতের আয়োজন করা হয় নান্দাইল উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের জলা , কলম্বো ও দিঘা নামে তিনটি বিলে।
মাছধরার উৎসব হাইত কবে থেকে চালু হয়েছে তা ওই এলাকার লোকজন নির্দিষ্ট করে বলতে পারেনি।
তবে এলাকার মুরুব্বিরা বলেন, শিশু বয়স থেকে তাঁরা এটি দেখে আসছেন। সাধারণত কার্তিক মাসে খাল-বিলের পানি কমে আসতে শুরু করে। পানি উরু বা হাঁটু সমান উচ্চতায় আসার পর ওই বিল মাছ ধরার উপযোগী হয়। পরেই হাইত আয়োজন করে বিল পাড়ের মানুষ। নিজেরা বসে একটি নির্দিষ্ট তারিখ ঠিক করে দূরদূরান্তের মানুষ ও আত্মীয়-স্বজনদের জানিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি একদিন আগে মাইকে প্রচার চালানো হয়। শত শত মানুষ একত্রে রব তুলে তিনটি বিলে টাক জাল, ঝাকি জাল, পলো ইত্যাদি নিয়ে নেমে মাছ ধরতে শুরু করে। ভাগ্য ভালো হলে কেউ কেউ বড় মাছ ধরতে পারে। আবার কাউকে খালি হাতে ফিরতে হয়।
উত্তর চন্ডীপাশা গ্রামের মো. সানাউল্লাহ (৩৫) বলেন,বিলগুলোতে আগের মত মাছ নেই। তাই হাইত আগের মত জমে উঠে না। তবুও হাইত আয়োজনের খবর পেলে দলে দলে মাছ শিকারির দল আগের দিন বিলপাড়ে জড়ো হয়ে রাত জেগে বসে থাকে ভোর হওয়ার অপেক্ষায়। মাছ না পেলেও আনন্দটুকু ভাগাভাগি করে নেয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: