শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «  

মঙ্গলগ্রহে সন্তান প্রসবে আগ্রহী নারী



Untitled-1 copyবিচিত্র ডেস্ক :: মঙ্গলগ্রহে এখনও ভালো করে পা রাখেনি মানুষ। কিন্তু তার আগেই ব্রিটিশ এক নারী তার প্রথম সন্তান জন্ম দিতে চান মঙ্গলগ্রহে। ম্যাগি লুই নামের এই ২৪ বছর বয়সী নারী বার্মিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নভোপদার্থবিদ্যায় পিএইচডি প্রার্থী। মঙ্গলগ্রহ ওয়ান প্রকল্পের জন্য যে ছয়শ প্রার্থীকে মনোনিত করা হয়েছে তাদের মধ্যে তিনি একজন। এই প্রকল্পের পরিকল্পনা অনুযায়ী আগামী ২০২৫ সাল নাগাদ মঙ্গলগ্রহে কলোনি স্থাপন করবে পৃথিবীর মানুষ।

নাসার বিজ্ঞানীরা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ৩৯ জন মানুষকে মঙ্গলগ্রহে পঠানোর জন্য মনোনিত করেছেন। আগামী মাসে এই দলে ম্যাগির সম্পৃক্ত হওয়ার কথা রয়েছে। বর্তমানে মনোনিত প্রার্থীদের নাসার গোপন ঘাটিতে মঙ্গলে বসবাসের উপযোগি করার জন্য প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। এখানে নিবিঢ় প্রশিক্ষণ শেষ হওয়ার পরেই তাদের মঙ্গলে পাঠানো হবে বলে নাসার পক্ষ থেকে প্রাথমিক বিবৃতিতে জানানো হয়।

ম্যাগির ভাষায়, ‘মঙ্গলগ্রহে কলোনি করতে হলে আমাদের সেখানে সন্তান জন্মদান করতে হবে। পর্যায়ক্রমেই সেটা ঘটবে। তবে এটা ভয়ানক চ্যালেঞ্জের হতে পারে। এখন পর্যন্ত কেউই মঙ্গলে সন্তান জন্মদানের বিষয়টি নিয়ে গবেষণা করেনি। কারণ নিম্ন অভিকর্ষয পরিবেশে নবজাতক সন্তানের পক্ষে টিকে থাকা সম্ভব হবে কিনা সেটা গবেষণার বিষয়। মঙ্গলে সন্তান জন্মদানের বিষয়টি হাস্যকর হতে পারে কিন্তু এটা সত্যিই মাইলফলক হবে।’

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ২০১৮ সালের মঙ্গলের উদ্দেশ্যে একটি মহাকাশ যান রওনা দেবে। তবে নাসার বিবৃতি অনুযায়ী ২০২৪ সাল নাগাদ চারজন মানুষের একটি দলকে প্রথমবারের মতো মঙ্গলে পাঠানো হবে। পাশাপাশি এর দুই বছর পর আরও চারজনকে পাঠানো হবে। আর এই উদ্দেশ্যেই প্রায় এক দশক ধরে ৬০০ জন প্রার্থীকে ঔষধ, কৃষি, পয়ঃনিষ্কাষন ও বৈদ্যুতিক কর্মকাণ্ড সম্পর্কে নিবিঢ় প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: