মঙ্গলবার, ৪ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «  

বাংলাদেশে ঢুকেছে ৩৬০ আইএস জঙ্গি!



7. ISনিউজ ডেস্ক::
বাংলাদেশে অন্তত ৩৬০ জন আইএস (ইসলামিক স্টেট) জঙ্গি ঢুকেছে বলে খবর পেয়েছে বাংলাদেশের গোয়েন্দা ও র‌্যাব (র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন)। এই খবর পাওয়ার পরই দেশজুড়ে অভিযানে নেমেছে র‌্যাব ও গোয়েন্দা।

রবিবার রাতেই ঢাকার যাত্রাবাড়ি ও খিলখেত থেকে সন্দেহভাজন চার আইএস জঙ্গিকে গ্রেফতারের খবর দিয়েছে পুলিশ। তাদের মধ্যে বাংলাদেশে জঙ্গিদের সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকা সাখায়াতুল কবিরও রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, পাকিস্তানে আইএসআইএস জঙ্গিদের শিবিরে প্রশিক্ষণ নিয়ে সে বাংলাদেশে ঢুকে সদস্য সংগ্রহের কাজ শুরু করেছিল। চার জঙ্গির কাছ থেকে কিছু অস্ত্রশস্ত্র ছাড়া প্রচারের প্রচুর সামগ্রী বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। কয়েকটি কম্পিউটার, প্রচুর সিডি এবং ইস্তাহারও উদ্ধার হয়েছে।

আন্তর্জাতিক গোয়েন্দা সংস্থাগুলির কাছ থেকে খবর এসেছে, টুঙ্গির তুরাগ নদীর তীরে ধর্মীয় সম্মেলন বিশ্ব ইজতেমার সুযোগেই পাকিস্তান হয়ে আইএস জঙ্গিরা বাংলাদেশে ঢুকেছে।

গোয়েন্দাদের দাবি, নাশকতা ছাড়া দেশের শীর্ষ কয়েক জন রাজনৈতিক নেতাকে খুনের লক্ষ্যও রয়েছে জঙ্গিদের। আইএস-এর লক্ষ্য পাকিস্তান, ভারত ও বাংলাদেশ জুড়ে ‘ইসলামিক খেলাফত’ প্রতিষ্ঠা। পাকিস্তান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ভারতেও অন্তত ৬৫০ জন আইএস জঙ্গি ঢুকেছে বলে গোয়েন্দা-তথ্যে জানানো হয়েছে। ভারতকেও সেই তথ্য জানানো হয়েছে।

ধৃত জঙ্গিরা জানিয়েছে, এখান থেকে সদস্য সংগ্রহ করে পাকিস্তান হয়ে সিরিয়া ও ইরাকে ঢুকে লড়াই করাও ছিল তাদের লক্ষ্য। পুলিশ জানিয়েছে, জঙ্গিদের আশ্রয় ও অর্থ জোগানের জন্যও কয়েক জনকে আটক করা হয়েছে।

দু’দফায় ইজতেমার সময়ে আইএস জঙ্গিরা ঢুকতে পারে বলে আগে থেকেই সতর্কবার্তা পেয়েছিল গোয়েন্দা বিভাগ। এ জন্য এ বার বাড়তি নজরদারির ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু তার মধ্যেই অন্তত ৩৬০ জন জঙ্গি ঢুকে পড়েছে বলে জানতে পেরেছেন গোয়েন্দারা। তার পরই অভিযান শুরু হয়েছে। ধৃত ৪ জঙ্গিকে জেরা করে আরও তথ্য আদায়ের চেষ্টা চালানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: