মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

বঙ্গবন্ধু সেতুর ভেতরে ফাঁটলের বিস্তৃতি বাড়ছে



bd setuনিউজ ডেস্ক::
১৯৯৮ সালের ২৩ জুন বঙ্গবন্ধু সেতু উদ্বোধনের পর এটি ১শ’ বছর টেকসই হবে বলে কোরিয়ান হুন্ডাই কোম্পানি থেকে বলা হলেও মাত্র ৮ বছর পর ২০০৬ সালে সেতুর ওপরে ও নিচে এমনকি ভেতরের বক্সের ভেতর ফাঁটল দেখা যায়। অার সেতুর ভেতরের অংশে ফাঁটলের সংখ্যা ও বিস্তৃতি দিন দিন বাড়ছে।

ভারী ট্রাক ও রেল চলাচলে ঝাঁকুনি ও কম্পনের কারণেই এসব ফাঁটলের দৈর্ঘ্য, প্রস্থ ও বিস্তৃতি ক্রমশঃ বাড়ছে বলে দাবি বিবিএ’র। গত বছর ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কমিউনিকেশন কনস্ট্রাকশন কোম্পানি অব চায়না (সিসিসিসি)-কে দিয়ে বিবিএ পৌনে ৩শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে সেতুর ওপরিভাগে ফাঁটল মেরামত করে। আমদানীকৃত উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ই-পক্সি আঠা ও সাদা সিমেন্টের অ্যাসফল্ড বা ইমালশন দিয়ে সেতুর ওপরিভাগে ফাঁটল মেরামত ফলপ্রসু হওয়ায় দীর্ঘ সময় পর্যবেক্ষনের পর ভেতরের অংশেও ফাঁটল মেরামতের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানায় বিবিএ। নিজেদের অর্থের পাশাপাশি সরকারের কাছে আরো প্রায় ১শ’ ১৫ কোটি টাকার বরাদ্দ চেয়েছে বিবিএ।

এরই মধ্যে দরপত্র আহবান করা হয়েছে। চূড়ান্ত যাচাই-বাছাই শেষে মার্চ-এপ্রিল থেকে কাজ শুরু করে ডিসেম্বরেই মেরামত শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে। সেতু রক্ষাণাবেক্ষনকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেটারোলজিক্যাল কনস্ট্রাকশন কোম্পানি অব চায়না’র প্রধান প্রকৌশলী মোজাম্মেল হক জানান, সেতুর নিচের পৃষ্ঠে সবগুলো বক্সের মধ্যে চুলাকৃতি নানা ধরনের ফাঁটল রয়েছে। বিবিএ’র নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ জানান, সেতুর নিচে দশমিক ৬ মিলি মিটার প্রস্থে এবং সেতুর সাড়ে ৪ কি.মি. দৈর্ঘ্যে ১২/১৩ টি ফাটল রয়েছে। খালি চোখে দেখা দুস্কর। বিবিএ’র প্রধান প্রকৌশলী কবির আহম্মেদ বলেন, ফাঁটল মেরামতে এরই মধ্যে দরপত্র আহবান করা হয়েছে। চূড়ান্ত যাচাই-বাছাই শেষে মার্চ-এপ্রিল থেকে শুরু করে ডিসেম্বরে শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে। এসব ফাঁটল নিয়ে আতঙ্কিত হবার কিছু নেই। যে কোন কংক্রিটের স্থাপনায় এ ধরনের চুলাকৃতি ফাঁটল দেখা যেতে পারে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: