সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্টের কিছু ভুল স্বীকার করে ব্যাখ্যা দিলেন মান্না



নিউজ ডেস্ক:: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের কিছু ভুলের কথা স্বীকার করে তার ব্যাখ্যা দিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।বুধবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) স্বাধীনতা হলে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম আয়োজিত ‘৩০ ডিসেম্বর : অতঃপর’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান আলোচকের বক্তৃতায় মান্না বলেন, আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলাম। এতে আমাদের অবশ্যই কিছু আচরণ এবং উচ্চারণে ভুল ছিল।

তিনি বলেন, আমরা শীর্ষ নেতারা কেন মনে করলাম সামরিক বাহিনী মাঠে নামলে সব ঠিক হয়ে যাবে? জনগণকে ভোটের জন্য তৈরি করতে বলা হয়েছে, কিন্তু প্রতিরোধ করার জন্য বলা হয়নি।মান্না বলেন, শুধু আওয়ামী লীগ আর পুলিশ যদি নির্বাচনে করতে নামত। বিজিবি চুপচাপ থাকত, সেনাবাহিনী না থাকত, আন্দোলনের আরেকটা ডেউ তৈরি হতো, আর এই ডেউ সারা দেশে ছড়িয়ে পরত। এ সরকারের কাছে দাবি করে হবে না, আদায় করে নিতে হবে।

খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া নির্বাচনে যাওয়ার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সম্প্রতি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানিতে বিএনপির তৃণমূল নেতারা ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে যে বক্তব্য দেন তার জবাবে মান্না বলেন, আমরা যে ঐক্যফ্রন্ট করেছি এই ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে বেগম জিয়ার মুক্তির দাবি এক নম্বরে আছে। আজকে আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, বেগম জিয়াকে যদি মুক্ত করতে হয়, তাহলে লড়াই করেই মুক্ত করতে হবে, এর কোনো বিকল্প নেই। কিন্তু সেই লড়াই কি আমরা করতে পেরেছি? সেই লড়াই কি কেবল বেগম জিয়ার মুক্তির লড়াই? সেই লড়াই তো বাংলাদেশের মুক্তির লড়াই, গণতন্ত্রের মুক্তির লড়াই, এখন পর্যন্ত যেসব নেতাকর্মী জেলে আছেন তাদের মুক্তির লড়াই।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সংলাপের পর অনেকে অনেক কথা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর সংলাপের পর আমরা কি কোথাও বলেছিলাম, আমরা আশাবাদী আছি। প্রধানমন্ত্রী অঙ্গীকার রক্ষা করবেন। আমরা নিশ্চয়ই সঠিকভাবে নির্বাচন করতে পারব?

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মান্না বলেন, নেতৃত্বের কথা বলেন আর যাই বলেন, আমি তো মনে করি না আমরা কোনো ভুল করেছি। আমরা লড়াইয়ে জিতেছি, রাজনীতিকভাবে জিতেছি।

আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা সাঈদ আহমেদ আসলামের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, বগুড়া থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট বিজয়ী প্রার্থী মো. মোশাররফ হোসেন, ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক শাহ মো.নেছারুল হক, জাসাসের সহ-সভাপতি শাহরিয়া ইসলাম শায়লা, ঢাকা মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন, সাবেক ছাত্রনেতা শাজাহান মিয়া সম্রাট, জিনাফের সভাপতি লায়ন মিয়া মোহাম্মদ আনোয়ার প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: