বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক আইএজে কমিটির সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «  

নতুন মামলায় ফের রিমান্ডে ফারাবী



full_1759910979_1426334216নিউজ ডেস্ক :: লেখক অভিজিৎ রায় হত্যা মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড শেষে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের একটি মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাফিউর রহমান ফারাবীকে নতুন করে পাঁচ দিনের হেফাজতে পেয়েছে পুলিশ।

শনিবার ঢাকার মহানগর হাকিম মোস্তাফিজুর রহমান উগ্রপন্থি ব্লগার ফারাবীকে রিমান্ডে নেওয়ার আদেশ দেন।

ফেইসবুকে উগ্রপন্থি বক্তব্য-বিবৃতি প্রচার এবং লেখক-সাংবাদিকদের হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় সকালে রমনা থানায় ফারাবীর বিরুদ্ধে এই মামলা হয়।

অভিজিৎ হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক ফজলুর রহমান এই মামলা করেন বলে রমনা থানার এসআই নগেন্দ্র কুমার দাশ জানান।

ফারাবী ২০১৩ সালের নভেম্বর থেকে ২০১৪ সালের ২১ অগাস্ট পর্যন্ত ইন্টারনেটে অনেককে হত্যার হুমকি দেন বলে মামলায় বলা হয়েছে।

নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনের একটি লেখা প্রকাশ করায় বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজামকেও তিনি হত্যার হুমকি দেন বলে এতে বলা হয়েছে।

নতুন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের এসআই ওহিদুজ্জামান দুপুরে ফারাবীকে আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের হেফাজত চান। শুনানি শেষে বিচারক তার পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এ সময় ফারাবীর পক্ষে কোনো আইনজীবী এজলাসে ছিলেন না। তার জামিন চেয়েও কোনো আবেদন হয়নি।

এর আগে অভিজিৎ হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত ৩ মার্চ ফারাবীকে ১০ দিনের রিমান্ডে পাঠায় আদালত।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি রাতে বইমেলা থেকে ফেরার পথে টিএসসির উত্তর পাশে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান সংলগ্ন ফুটপাতে কুপিয়ে হত্যা করা হয় মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা ও সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী লেখক অভিজিৎ রায়কে।

ফেইসবুকে অভিজিৎকে হত্যার হুমকি দিয়েছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র ফারাবী। অভিজিৎ নিহত হওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইটগুলোতে তার নাম নতুন করে আলোচনায় আসে।

উগ্রবাদীদের পক্ষে বিভিন্ন সময় কার্যক্রম পরিচালনাকারী ফারাবী বাংলা বই বিক্রির ওয়েবসাইট ‘রকমারি ডটকম’ থেকে অভিজিৎ রায়ের বই সরাতেও হুমকি দিয়েছিলেন এর আগে।

২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে শাহবাগ আন্দোলনের কর্মী ব্লগার আহমেদ রাজীব হায়দারের জানাজা পড়ানোয় ইমামকে হত্যার হুমকি দিয়েও ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ছেলে ফারাবী।

ওইবছর ২৪ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই নম্বর গেইট এলাকা থেকে পুলিশ ফারাবীকে গ্রেপ্তার করে। ফেইসবুক ব্যবহার করে ইমামকে হত্যার হুমকি দেওয়ায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে জুন মাসে ঢাকার একটি আদালত তার বিরুদ্ধে অভিযোগও গঠন করে।

কিন্তু হাই কোর্টের জামিনে ২০১৩ সালের ২১ অগাস্ট কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে যান ফারাবী। আর মুক্তি পেয়েই ‘নাস্তিকদের’ হত্যাকাণ্ড সমর্থন করে তিনি ফেইসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন, যাতে বলা হয় “আমার দৃষ্টিতে নাস্তিকরা হচ্ছে পোকামাকড় আর পোকামাকড়দের মরে যাওয়াই ভাল।”

ফারাবী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিদ্যায় ভর্তি হলেও ২০১০ সালে হিজবুত তাহরীরে সক্রিয় হয়ে লেখাপড়া শেষ করেনি। নাশকতায় জড়িত থাকার অভিযোগে একমাস জেলও খাটতে হয়েছিল তাকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: