রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «  

ধর্ষিতা হ্যাপির পাশে নেই তার পরিবারও



Rubel-happyবিনোদন ডেস্ক :: কিছুটা ব্যাকফুটে ঢলিউডের উঠতি অভিনেত্রী নাজনিন আখতার হ্যাপি৷ বাংলাদেশের জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে তাঁর দায়ের করা রিট পিটিশন খারিজ হয়ে গেল মঙ্গলবার৷ তবে এখনই হাল ছাড়তে নারাজ হ্যাপি৷ তাঁর বক্তব্যে পরিস্কার শেষ দেখে ছাড়বেন৷ তিনি জানান, এই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে যাবেন। রুবেলের বিরুদ্ধে দায়ের করা প্রতারণা মামলাটি তিনি যে কোনও মূল্যে চালিয়ে যাবেন।
রুবেল হোসেনকে বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ দিতে সোমবার হাইকোর্টে রিট পিটিশন দাখিল করেছিলেন হ্যাপির আইনজীবী মহম্মদ ইউনুস আলী আখন্দ। মঙ্গলবার তিন দফায় আবেদনটি শুনানির জন্য উঠলেও আখন্দ অনুপস্থিত থাকায় হ্যাপির আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি গাজী রেজা-উল হক এবং বিচারপতি আবু তাহের সাইফুর রহমানের ডিভিশন বেঞ্চ।
বিশ্বকাপের দল ঘোষণার পরই কেন রিট পিটিশন করেছেন – গ্লিটজের এমন প্রশ্নে হ্যাপি দাবি করছেন, বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দল ঘোষণার পাঁচ দিন আগেই তিনি রিট পিটিশন দায়ের করেছিলেন। মামলার নথি পেতে দেরি হয়েছে বলেও জানান তিনি। এই প্রসঙ্গে হ্যাপি বলেন, ‘রুবেল বিশ্বকাপে খেলতে পারবে কি পারবে না, তা নিয়ে আমার কোনও মাথা ব্যথা নেই। দলে কি প্রভাব পড়ল, সেটা আমার ভাবার বিষয় নয়। আমার কাছে রুবেল কোনও ক্রিকেটার নয়, ও একজন প্রতারক ও অপরাধী। অপরাধী অপরাধ করে স্বাভাবিক জীবনযাপন করবে, তা আমি মানতে পারছি না। আমি ওর কঠোর শাস্তি চাই।’
হ্যাপি আরও জানিয়েছেন , তিনি তাঁর আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন। এখনই আশা ছাড়তে নারাজ তিনি। রুবেলের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি নিজেই সামাল দিচ্ছেন দাবি করে হ্যাপি বলছেন, ‘এই মুহূর্তে আমি খুব অসহায়৷ মামলা দায়েরের পর আমার পরিবারও আমার পাশে নেই। পুরো প্রক্রিয়াটি আমাকে একাই সামাল দিতে হচ্ছে। বাইরে বের হলেই কটূক্তি শুনতে হচ্ছে। তবে আমি হাল ছাড়ছি না৷ শেষ দেখতে চাই৷’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: