শুক্রবার, ২৪ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «  

ধর্মপাশায় জয়শ্রী ইউপি চেয়ারম্যান লাঞ্চিত



ধর্মপাশা প্রতিনিধি ::
ধর্মপাশা উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহসিন আহমেদ স্থানীয় এক ট্রলারের চালক দ্বারা মারধর ও লাঞ্চনার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল সন্ধ্যায় জয়শ্রী বাজার নদীর ঘাটে এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, ধর্মপাশা থানা পুলিশ জয়শ্রী ইউনিয়নের সানবাড়ি এলাকায় নৌপথে চাঁদাবাজী ঠেকাতে বাদেহরিপুর গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে আনুজ্জামান ওরফে আনোয়ার হোসেনের ট্রলারে করে প্রতিদিনি টহল দেন। গত রোববার দুপুরে জয়শ্রী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহসিন আহমেদ ব্যক্তিগত কাজে তেলিগাঁও গ্রামে যাচ্ছিলেন। চেয়ারম্যান পথিমধ্যে সানবাড়ির কালামানিক ডুয়ার এলাকায় কয়েকটি বলগেট নৌকার চালকদের কাছে নৌপথে চাঁদাবাজি হচ্ছে কি না জানতে চান। নৌকার চালকেরা চাঁদাবাজি হওয়ার কথা জানালে ক্ষিপ্ত হন মহসিন আহমেদ। তিনি এ সময় ওইখানে উপস্থিত থাকা আনোয়ার হোসেনের ট্রলারের কাছে যান এবং পুলিশের উপস্থিতিতে আনোয়ার হোসেনকে মারধর করেন। পরে সন্ধ্যায় মহসিন আহমেদ ব্যক্তিগত কাজ শেষে জয়শ্রী বাজারে ফেরার সময় জয়শ্রী নদী ঘাটে আসা মাত্রই আনোয়ার হোসেনসহ ১০/১৫ জন তাঁকে মারধর করে লাঞ্চিত করে। স্থানীয় লোকজন পরিস্থিতি সামাল দেন।
আনোয়ার হোসেন জানান, তাঁর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে চেয়ারম্যান মহসিন আহমেদ পুলিশের উপস্থিতিতে তাঁকে মারধর করেছেন। তবে আনোয়ার হোসেন চেয়ারম্যানকে মারধরের কথা অস্বীকার করেছেন।
আনোয়ার হোসেনকে মারধর করার বিষয়টি সত্য নয় দাবি করে চেয়ারম্যান মহসিন আহমেদ জানান, তিনি ব্যক্তিগত কাজে তেলিগাঁও যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে কয়েকটি বলগেট নৌকার চালকের সাথে আলাপ করে চাঁদাবাজি হচ্ছে কি না জানতে চান তিনি। নৌকার চালকেরা চাঁদাবাজি হওয়ার কথা জানালে তিনি আনোয়ার হোসেনকে ডেকে শুধু ধমক দেন।
ওইদিন সানবাড়ি এলাকায় কর্তব্যরত ধর্মপাশা থানার এসআই মো. সাদেক খান জানান, তাঁর উপস্থিতিতেই চেয়ারম্যান মহসিন আহমেদ আনোয়ার হোসেনকে থাপ্পড় মারতে থাকেন।
ধর্মপাশা থানার ওসি গোলাম কিবরিয়া জানান, তিনি ঘটনাটি শুনেছেন তবে এখন পর্যন্ত কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: