রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

দেশে ফিরে জেলে যেতেও প্রস্তুত: লতিফ সিদ্দিকী



Latif_legalডালাস: হজ্জ নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্ক সৃষ্টিকারী ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী পশ্চিমা কোনো দেশে রাজনৈতিক আশ্রয় চাবেন না। তিনি বরং দেশে ফিরে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে চান। তবে পরিবারের সদস্যরা ধীরে সুস্থিরে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পক্ষে। লতিফ সিদ্দিকীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে এই তথ্য জানা গেছে।
এদিকে আবদুল লতিফ সিদ্দিকী নিজেই বিদেশে রাজনৈতিক আশ্রয় চাওয়ার সম্ভাবনা নাকচ করে বলেছেন, আমেরিকা কিংবা ব্রিটেনে রাজনৈতিক আশ্রয় নেব কেন। আমি দেশে ফিরে জেলে যেতেও প্রস্তুত।
ঢাকার এক দৈনিক কে তিনি জানিয়েছেন, তিনি আমেরিকার ডালাসে অবস্থান করছেন। ঈদের পর সিঙ্গাপুর হয়ে দেশে ফিরবেন। ঢাকায় তাকে ঢুকতে দেওয়া না হলে কলকাতায় চলে যাবেন।
হজ্জ নিয়ে লতিফ সিদ্দিকীর বক্তব্যে বিতর্ক সৃস্টির পর পরই এক শ্রেণীর মিডিয়া সংবাদ পরিবেশন করে যে, লতিফ সিদ্দিকী রাজনৈতিক আশ্রয় লাভের জন্য এই ধরনের বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। মিডিয়া অবশ্য এই বক্তব্য বা ব্যাখ্যাদাতা হিসেবে কোনো সূত্র উল্লেখ করেনি। বেনামি বিশ্লেষক এবং সূত্রের বরাত দিয়ে ঢাকার মিডিয়া লতিফ ‘সিদ্দিকী রাজনৈতিক আশ্রয় চাইবেন’ মর্মে গুজব রটিয়ে দেয়।
এ ব্যাপারে লতিফ সিদ্দিকীর পরিবারিক এবং অন্যান্য ঘনিষ্ঠসূত্রদের সঙ্গে কথা বললে ভিন্ন ধারনা পাওয়া যায়। সূত্রগুলো জানায়, বিতর্ক এবং উত্তপ্ত পরিস্থিতি সত্বেও লতিফ সিদ্দিকী পূর্ব নির্ধারিত সময়েই দেশে ফেরার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু পরিবারের সদস্য এবং ঢাকায় সরকার ও রাজনীতিতে তার শুভাকাংখীরা এই মুহুর্তে দেশে না ফেরার পরামর্শ দেন।
একটি সূত্র জানায়, লতিফ সিদ্দিকী তার শুভাকাংখীদের বলেছেন- লতিফ সিদ্দিকী তাসলিমা নাসরিন নন- তিনি লতিফ সিদ্দিকী। যেই দেশটির জন্মের জন্য তিনি প্রাণবাজি রেখে যুদ্ধ করেছেন, তিনি সেই দেশেই ফিরে যাবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: