সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

দুর্দশাগ্রস্ত দেশের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ভেনেজুয়েলা



miserable-countriesঅনলাইন ডেস্ক:: সম্প্রতি প্রকাশিত দুর্দশাগ্রস্ত দেশের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ভেনেজুয়েলা। আর ৪৮ নম্বরে রয়েছে বাংলাদেশ! আর আশেপাশের দেশগুলোর ভেতর পাকিস্তান ৩৩ নম্বর, ভারত ৩৮ এবং ভূটান ৪৪। অর্থ্যাৎ বাংলাদেশ এই দেশগুলোর চেয়েও ভালো অবস্থানে রয়েছে।

কাটো ইনস্টিটিউটের করা ওয়ার্ল্ড মাইজারি ইনডেক্স থেকে এ তথ্য জানা যায়। ১০৮ টি দেশ নিয়ে করা এ তালিকার সর্বশেষ অর্থাৎ সবচেয়ে কম দুর্দশাগ্রস্ত দেশ হিসেবে রয়েছে ব্রুনাই।

ওয়ার্ল্ড মাইজারি ইনডেক্সের স্কেলে ভেনেজুয়েলার পয়েন্ট ১০৬ দশমিক ০৩ আর ব্রুনাইয়ের পয়েন্ট মাত্র ৪ দশমিক ৯৪। কানাডার পয়েন্ট ১০ দশমিক ৬২।

সবচেয়ে দুর্দশাগ্রস্ত দেশগুলোর তালিকায় আরও রয়েছে আর্জেন্টিনা, ইউক্রেন, সিরিয়া, ইরান, ব্রাজিল, আর্মেনিায়। কানাডার মত বিস্ময় জাগিয়ে এ তালিকার বেশি দুর্দশাগ্রস্ত দেশের তালিকায় আরও রয়েছে গ্রিস এবং স্পেন।

এদিকে সবচেয়ে কম দুর্দশাগ্রস্ত অর্থাৎ ভালো দেশের তালিকায় রয়েছে সুইজারল্যান্ড, চীন, জাপান, নরওয়ে, থাইল্যান্ড ও সুইডেন। নেদারল্যান্ড, বাহরাইন, যুক্তরাষ্ট্র এবং হংকংও কম দুর্দশাগ্রস্ত দেশের তালিকায় রয়েছে।

বেকারত্ব, মূল্যস্ফীতি, ব্যাংকের সুদহার, মোট দেশজ উৎপাদন এর উপর ভিত্তি করে এ সূচকটি তৈরি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কাটো জানিয়েছে তিন ধরণের হার এবং প্রতি বছরের জিডিপিকে ভিত্তি ধরে আমরা এ সূচকটি তৈরি করেছি। ১০৮ টি দেশকে নিয়ে এ সূচক তৈরি করা হয়েছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: