মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

জন্মদিনে ল্যাপটপের টাকায় ফুল নিয়ে মুসলমানদের প্রতি শিশুর শ্রদ্ধা



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: উপহার হিসেবে জন্মদিনে বাবার কাছ থেকে ল্যাপটপ পাওয়ার কথা ছিল শিশু দারাশের। কিন্তু অন্য এক উপহারের ইচ্ছা জানিয়ে অনলাইনজুড়ে প্রশংসা কুড়িয়ে নিয়েছে সে, চমকে দিয়েছে বাবাকেও। নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানায়, স্যামুয়েল সেনও ছেলের এই ইচ্ছা পূরণ করেন এবং সেটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে সবাইকে জানান। রোববার এই পোস্ট ও ছবি বিশ্বজুড়ে ভাইরাল হয়ে পড়ে।

স্যামুয়েল লিখেন, “জন্মদিনে তাকে একটি ল্যাপটপ উপহার দিয়ে তাকে চমক দিতে চেয়েছিলাম। সেও আমার কাছে ল্যাপটপই চেয়েছিল। কিন্তু সে উল্টো আমাকেই চমকে দিল।”

“গতকাল আমি যখন তাকে জিজ্ঞাসা করলাম, আজকে আমরা কিনতে যাচ্ছি; মানে তুমি জন্মদিনে কী চাও? তখন সে আমাকে বললো- ফুল! আমি তখন খুশিও হলাম আবার চিন্তিত হলাম। তার তো ল্যাপটপ চাইবার কথা।”

তখন তাকে জিজ্ঞাসা করলাম, “কেন ফুল কিনতে চাও?” দারাশ বললো, “আমি ফুল নিয়ে ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে যেতে চাই এবং সেখানে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে চাই।”

শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে এক শ্বেতাঙ্গ খ্রিস্টান চরমপন্থীর গুলিতে কয়েকজন বাংলাদেশিসহ কমপক্ষে ৫০ জন নিহত হন। আহত হন ৪৬ জন যাদের ১২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।এ ঘটনা পুরো পৃথিবীবাসীকে মর্মাহত করেছে। নয় বছরের শিশু দারাশের মনেও শোকের দাগ লেগে গেছে নির্মম এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা।

স্যামুয়েল বলেন, “আমি তখন আরও অবাক হয়ে গেলাম এবং বুঝতে পারছিলাম না কী বলবো। কেন? তুমি তো অনেকদিন ধরে ল্যাপটপ চাচ্ছিলে।”

দারাশ তখন বললো, “ল্যাপটপ কেনার টাকা ক্রাইস্টচার্চের অসহায় লোকদের দান করে দাও। তাদের বরং টাকার প্রয়োজন বেশি। আমি তোমার ল্যাপটপ ব্যবহার করতে পারব।”

স্যামুয়েলের এ পোস্ট ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়ে। হাজার হাজার মানুষ প্রতিক্রিয়া জানায় এতে।অনেকেই তাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানায় এবং তার এ ইচ্ছাপূরণের প্রতি ভালোবাসা জানায়।

একজন লিখেন, “ছোট্ট বাচ্চাটার কী সুন্দর হৃদয়। অবশ্যই আমরা তার মতো আরও মানুষ চাই এ পৃথিবীতে। তার মতো আরও নির্মল। তার এই নিঃস্বার্থ ভালোবাসার জন্য হলেও সে এখন একটি ল্যাপটপ পাওয়ার দাবি রাখে।”

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: