বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

জগন্নাথপুরে সংঘর্ষে আহত কিশোর লাইফ সাপোর্টে



Jogonnatpur3নিউজ ডেস্ক :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে পুকুরে মাছ ধরা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত কিশোর সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থেকে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এ ঘটনায় এক নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটে জগন্নাথপুর পৌর শহরের জগন্নাথপুর বড় দীঘিরপাড় গ্রামে।
পুলিশ ও এলাকাবাসি সূত্রে জানাগেছে, গ্রামের বড়দীঘি পুকুরটিতে দীর্ঘদিন ধরে মাছের চাষ করছেন একই গ্রামের বাসিন্দা আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল জলিল ময়না। গত মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে পুকুরে একটি মাছ ভেসে উঠে। ওই মাছটি ধরার চেষ্টা করে একই গ্রামের সাজু মিয়া। এ সময় আব্দুল জলিল ময়নার লোকজন বাধা দেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ওই দিন রাত ৮ টার দিকে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে সাজু পক্ষের আতিক মিয়া (১৯) ও শিকন্দর আলী (২০) আহত হন। এ সময় মাথায় রামদার আঘাতে গুরুত্বর আহত কিশোর আতিক মিয়াকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
বর্তমানে গুরুত্বর আহত কিশোর আতিক মিয়া হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থেকে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে বলে জানাগেছে। এ ঘটনায় আহত আতিক মিয়ার পিতা লাল মিয়া বাদি হয়ে প্রতিপক্ষের আব্দুল জলিল ময়নাসহ ৭ জনকে আসামি করে জগন্নাথপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পরিপ্রেক্ষিতে মামলার আসামি একই গ্রামের লেবু মিয়ার স্ত্রী মমিনা বেগমকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতকে গতকাল বুধবার সুনামগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এ মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা জগন্নাথপুর থানার এস আই কবির উদ্দিন জানান, এ মামলার অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া ডাক্তার জানিয়েছেন লাইফ সাপোর্টে থাকা আতিকের বেঁচে থাকার সম্ভাবনা খুবই কম।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: