বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক আইএজে কমিটির সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «  

খালেদার কালো হাত ভেঙ্গে দেয়া হবে : নাসিম



19. nasimনিউজ ডেস্ক::
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য চালালে তার কালো হাত ভেঙ্গে দেয়ার কথা বললেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহম্মদ নাসিম।

সোমবার রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে বাংলাদেশ কৃষক লীগ আয়োজিত মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ হুশিয়ারি দেন।

তিনি বলেন, বিএনপি ৫ জানুযারি নাকি রাজপথ দখল করবে! আমরাও ৫ জানুয়ারি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গণতন্ত্র রক্ষা দিবস পালন করব। এদিন তাদের মাঠে নামতে দেয়া হবে না। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরাই মাঠে থাকবে। সেদিন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সবাইকে মাঠে থাকতে হবে। আর যারা মাঠে থাকবে না তারা আওয়ামী লীগের কর্মী না। তাদের আওয়ামী লীগে কোনো স্থান নেই।
নাসিম বলেন, হরতালের নামে খালেদা জিয়া গাড়ি পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করেছেন। ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আগে মসজিদ, মন্দিরে হামলা করেছেন। ভবিষ্যতে এমন নৈরাজ্য করলে আমরা বসে থাকব না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তাদের (বিএনপির) কালো হাত ভেঙ্গে দেয়া হবে।

গত ৫ জানুয়ারি নির্বাচন না হলে দেশে গণতন্ত্র থাকত না উল্লেখ করে নাসিম বলেন, নির্বাচন না হলে দেশে সামরিক শাসন জারি হতো। দেশে গণতন্ত্র থাকত না। আমরা বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান পালন করতে পারতাম না। খালেদা জিয়াও হুমকি দিয়ে হরতাল ডাকতে পারতেন না। এখন দেশে গণতন্ত্র আছে। ভোট দেয়ার অধিকার আছে। হরতাল ডাকারও অধিকার আছে। এ অধিকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিয়েছেন।

তিনি খালেদাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, যে হরতাল জনগণ সমর্থন করে না, সে হরতাল কেন করেন? আপনি যতই চেষ্টা করনে না কেন, ২০১৯ সালের আগে কোনো নির্বাচন নয়। এ নির্বাচন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই হবে বলেও সাফ জানিয়ে দেন তিনি।
সংগঠনের সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ড. আব্দুর রাজ্জাক ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট খন্দকার শামসুল হক রেজা

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: