শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «  

একই সুরে গাইলেন প্রধানমন্ত্রী-সমাজকল্যাণমন্ত্রী



15. pm-ministrনিউজ ডেস্ক::
একই অনুষ্ঠানে গান গেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সমাজকল্যাণমন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলী ও প্রতিমন্ত্রী প্রমোদ মানকিন। আজ বৃহস্পতিবার অষ্টম বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠান হয়। সেখানে এই তিনজন গান গেয়েছেন। সমাজকল্যাণ, স্বাস্থ্য ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নীল বাতি (অটিজমের রং) জ্বেলে দিবসের উদ্বোধনী বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলী। তিনি বক্তব্য শেষে ‘আমরা করব জয়’ গানটির কিছু অংশ গেয়ে শোনান। এ সময় প্রধানমন্ত্রীও মন্ত্রীর সঙ্গে সুর মেলান। অনুষ্ঠানের ধন্যবাদ পর্বে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী প্রমোদ মানকিনও বক্তব্য শেষে গারো ভাষায় একটি গান গেয়ে শোনান। পরে প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধে ‘প্রভুর সেবা’ নিয়ে একটি গান গেয়ে শোনান। প্রধানমন্ত্রী অটিস্টিক শিশুদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন ও শিশুদের সঙ্গে ছবি তোলেন।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আগে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোজাম্মেল হোসেন। সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ৩০ বছর বয়সী অটিস্টিক সন্তানের মা নাছিমা বেগম এতে স্বাগত বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানের শেষপর্যায়ে ঘোড়ার গাড়ি, সাজগোজ করা তিনটি হাতি শের বাহাদুর, ধোলাই সুন্দরী ও ফুল সুন্দরীকে নিয়ে একটি শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র থেকে শুরু হয়ে বিজয় সরণিতে গিয়ে শেষ হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: