মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক ইজিএনের নতুন সভাপতি, অনুরূপ সম্পাদক  » «   ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «  

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অনুষ্ঠানে আশফাক আহমদ: সত্যিকার ইসলাম প্রতিষ্ঠায় সকলকে কাজ করতে হবে



27. ashfaq ahmredসিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আশফাক আহমদ বলেছেন, সত্যিকার ইসলামের পথে এসে কামিয়াবির জন্য ইমাম সাহেবরা মানুষকে আহ্বান জানান। কিন্তু অনেক ইমাম সাহেব আল্লাহর পবিত্র ঘর মসজিদে বসে মিথ্যা অপ-প্রচার চালান। হেফাজতে ইসলামের শাপলা চত্বর ট্রাজেটির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেদিন হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন বলে মসজিদের মাইকে ঘোষণা করা হয়েছে। অনেক ইমাম মসজিদে বসে সেটাকে সত্য বানানোর চেষ্টা করেছেন। মানুষকে বিভ্রান্ত করেছেন। কিন্তু সেটা মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। মসজিদে বসে এমন মিথ্যাচার করে তারা মসজিদকে অপবিত্র করেছেন। সেই সাথে ইসলামকেও কলুসিত করেছেন। কারণ ইসলাম কখনো মিথ্যাকে প্রশ্রয় দেয় না। ইসলামের দৃষ্টিতে মিথ্যা বলা মহাপাপ। অথচ সত্যের পথে মানুষকে যারা আহ্বান জানান তারাই এমন জগন্য কাজ করেছেন। কেনো, কার জন্য? তাই এসব ইসলাম নামধারী থেকে সকলকে সজাগ থাকতে হবে। তিনি ইমামদেরকে সত্যিকার ইসলাম প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাওয়ারও আহ্বান জানান।
তিনি রোববার দুপুরে সিলেট ইসলামিক ফাউন্ডেশন মিলনায়তনে ইসলামিক ফাউন্ডেশন সিলেট সদর উপজেলার উদ্যোগে মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম এবং শিক্ষকদের নিয়ে অনুষ্ঠিত সভায় উপরোক্ত কথা বলেন।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন সিলেটের উপ-পরিচালক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে ও সদর উপজেলার ফিল্ড সুপারভাইজার সৈয়দ জিয়াউর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন, মসজিদ ভিত্তিক মক্তব চালু করা অত্যন্ত জরুরী। আগে ফজরের নামাজ পড়ে শিশুরা মক্তবে যেতো। এখন তা আর সবখানে নেই। এই না থাকার কারণে শিশুরা ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভ থেকে শুরু করে অনেক কিছুই শিখতে পারছে না। মসজিদে যারা নামাজ পড়তে আসে এদের মধ্যেও অনেকে আছে, যারা নামাজ পড়ে ঠিকি, কিন্তু অনেক কিছুই জানেনা। এসব বিষয়ে ইমাম সাহেবদের নজর দেওয়া প্রয়োজন বলে তিনি জানান।
অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক শাহ মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম, স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন সিলেটের ফিল্ড অফিসার ফিরোজ আল মামুন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেটের সভাপতি মাওলানা নূরুল আমিন, শিক্ষকদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন কালেক্টরেট জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা শাহ আলম।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: