শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

ইন্দোনেশিয়ার সাগরে বাংলাদেশিসহ ১৪০০ অভিবাসী উদ্ধার



full_759178832_1431323898প্রবাস ডেস্ক :: ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়ার সমুদ্র উপকূল থেকে আজ সোমবার প্রায় এক হাজার ৪০০ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে। ইন্দোনেশিয়ার উত্তর উপকূলে আচেহ প্রদেশের কাছে ভাসমান দুটি কাঠের নৌকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয় বলে স্থানীয় কর্তৃপক্ষের তথ্য।

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, তেল ফুরিয়ে যাওয়ায় সপ্তাহখানেক ধরে নৌকাদুটি সাগরে নিয়ন্ত্রণহীন অবস্থায় ভাসছিল। উদ্ধারকৃতদের মধ্যে শতাধিক নারী ও শিশুও রয়েছে।

আচেহ সার্চ অ্যান্ড রেসকিউ এজেন্সির মুখপাত্র মোহাম্মদ আরিফ মুতাকিন রয়টার্সকে বলেন, “এ পর্যন্ত যে তথ্য আমরা পেয়েছি, তাতে উদ্ধারকৃতদের অধিকাংশ এসেছে মিয়ানমার থেকে, তারা রোহিঙ্গা মুসলমান।”

তবে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) বলছে, তাদের মধ্যে বাংলাদেশি নাগরিকরা আছেন, যারা আনুমানিক এক সপ্তাহ আগে থাইল্যান্ড ছেড়ে আসেন বলে কর্তৃপক্ষের ধারণা। ইন্দোনেশিয়া উপকূলে আসার পথে নৌকার মধ্যেই অনেকের মৃত্যু হয়েছে।

কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে জানানো হয়, এই অভিবাসীরা চারটি নৌযানে ছিলেন। এই অভিবাসীরা বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের। গতকালই ইন্দোনেশিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় আচেহ প্রদেশের সমুদ্র উপকূলে এক নৌযান থেকে প্রায় ৬০০ জন বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: