রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

আমার উচ্চ শিক্ষার কোনো সার্টিফিকেট নেই : শিক্ষামন্ত্রী



nahidনিউজ ডেস্ক::
‘আমার উচ্চ শিক্ষার সার্টিফিকেট দুস্কৃতকারীরা পুড়িয়ে দিয়েছিল। তাই আমার উচ্চ শিক্ষার কোনো সার্টিফিকেট নেই।’

শনিবার দুপুর ১ টার দিকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ প্রাঙ্গণে কৃতি শিক্ষার্থী ও গুণীজন সম্মাননা অনুষ্ঠানে খোদ শিক্ষামন্ত্রী নিজেই এ কথা জানিয়েছেন।

অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশন লৌহজং কেন্দ্র আয়োজিত গুণীজন ও কৃতি-শিক্ষার্থী সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র অবস্থায় আমি ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য নূহ-উল-আলম লেনিন একই আবাসিক হলে থাকতাম।

একদিন দুস্কৃতকারীরা আমাদের আবাসিক হলে আগুন ধরিয়ে বই-খাতা, আসবাপত্র ও মূল্যবান কাগজ পত্রাদি পুড়িয়ে দেয়। সেই আগুনে সব কিছুর সঙ্গে আমার উচ্চ শিক্ষার সার্টিফিকেটও পুড়ে যায়। সেই থেকেই আমার উচ্চ শিক্ষার কোনো সার্টিফিকেট নেই।’

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ও অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা নূহ-উল-আলম লেনিন প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তৃতা করেন। আরো বক্তৃতা করেন- মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদল, লৌহজং উপজেলার চেয়ারম্যান ওসমান গনি তালুকদার, লৌহজং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফকির মো. আব্দুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ সিকদার, অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুজীব বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. মো. আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

সম্মাননা অনুষ্ঠানে সাংবাদিক-শিক্ষাবিদসহ ৭ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে গুণীজন, ২১৮ জন কৃতী শিক্ষার্থী ও পাঁচটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: