সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক ইজিএনের নতুন সভাপতি, অনুরূপ সম্পাদক  » «   ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «  

অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি: শিশুর হৃৎপিণ্ড ভক্ষণ!



Haert-670x378আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: শিশুর নির্দিষ্ট একটি অংশ খেতে পারলে অলৌকিক ক্ষমতা পাওয়া যাবে! এ যুক্তিটা আপনি আমার কাছে সেটি কুসংস্কার মনে হলেও তা বিশ্বাস করে এক নরকীয় কাণ্ড ঘটিয়েছে এক অটোচালক আসিফ শাহ ওরফে মুন্না।

ভারতের নাগপুরের বাসিন্দা আসিফ তন্ত্রমন্ত্র নিয়ে চর্চা করতেন। অলৌকিক ক্ষমতা অর্জন করতে তিনি সব করতেই রাজি! তাকে এক তান্ত্রিক জানায়, কোনো শিশুর চোখ, কিডনি ও হৃৎপিণ্ড খেলে অলৌকিক ক্ষমতা অর্জন করতে পারবে সে। আর সেই কুসংস্কারে ডুবে থাকা আসিফ আরো পাঁচ যুবককে সঙ্গে নিয়ে গত ৮ নভেম্বর ওয়ার্ধা থেকে একটি শিশুকে অপহরণ করে। নয় বছরের ওই শিশুর নাম রূপেশ হীরামন মুলে, চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র।

অপহরণের পর তাকে একটি নির্জন জায়গায় নিয়ে গিয়ে খুন করা হয়। তারপর সেই শিশুর চোখ, কিডনি ও হৃৎপিণ্ড তুলে নিয়ে সেইগুলো রান্না করে তা ভক্ষণ করে তারা। সেগুলো খাওয়ার পর স্থানীয় একটি হনুমান মন্দিরে পুজা দেয় আসিফ।

এদিকে পরিবার শিশুটিকে অনেক খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে পুলিশের দারস্থ হয়। পরে পুলিশ নির্দিষ্ট সূত্র ধরে পাঁচ শাগরেদসহ আসিফ শাহ ওরফে মুন্নাকে গ্রেপ্তার করে। আসিফের পাঁচ শাগরেদ হলো- উত্তম পোহানে, অঙ্কুশ গিরি, সুরেশ ধানোড়ে, দিলীপ ভোগে ও দিলীপ খামখারকে।

গ্রেপ্তারের পর নৃশংস এ ঘটনার বর্ণনা দেয় তারা। তাদেরকে এখন পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: