বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক ইজিএনের নতুন সভাপতি, অনুরূপ সম্পাদক  » «   ফিনল্যান্ডে ভাষা শহীদ দিবস পালন  » «   ‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «  

অবরোধে ভিন্ন কৌশলে পরিবহন শ্রমিকরা



oborod-paribahanঅনলাইন ডেস্ক:: ২০ দলীয় জোটের ডাকা টানা অবরোধে বিপর্যস্ত জীবন। অবরোধের কারণে পরিবহন শ্রমিকরা গাড়ি নিয়ে বের হতে পারছেন না। বাহিরে বের হলে জীবন নাশের হুমকি। পেট্রোল বোমার ভয়ে অনেকে গাড়ি নিয়ে বের হতে পারে না।

বাধ্য হয়েই বাঁচার তাগিদে তাই ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছেন নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার পরিবহন শ্রমিকরা। মাইক্রোবাসের গায়ে অ্যাম্বুলেন্স লিখে তা নিয়ে অবরোধের মধ্যে পরিবহনের কাজ করছেন তারা।

শুক্রবার দুপুরে দেখা যায়, একটি মাইক্রোবাসে লেখা হচ্ছে অ্যাম্বুলেন্স। বিষয়টি জানতে চাইলে প্রথমে তা এড়িয়ে যান ওই গাড়ির চালক রাজু।

পরক্ষণেই তিনি বলেন, টানা অবরোধে অনেকটা নিরুপায় হয়ে গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বের হলেও আতঙ্কে থাকতে হয়। তাই এই পথ ছাড়া আর কোনো উপায় নাই।

আরেক মাইক্রোবাস চালক জহুরুল বলেন, অবরোধ আর কিছু দিন চললে আমাদেরকে রাস্তায় বসতে হবে। তাই পরিবহন শ্রমিকদের বাঁচাতে হলে হরতাল অবরোধ বন্ধ করতে হবে।

‘মাহবুব আর্ট’র কর্মকর্তা জানান, অবরোধের জন্য গত কয়েক দিন ধরে মাইক্রোবাসগুলোতে অ্যাম্বুলেন্স লিখে নিয়ে যাচ্ছে পরিবহন শ্রমিকেরা।

উল্লেখ্য, ২০ দলীয় জোটের ১৮ তম দিন আজ। গত ১৭ দিনে নিহত হয়েছেন ৩১ জন। এরমধ্যে সংঘর্ষে মারা গেছেন ১০ জন, পেট্রোল বোমা ও আগুনে মারা গেছেন ১৫ জন। অন্যান্য কারণে মারা গেছেন আরও ৬ জন। আর ৬৭২ টি যানবাহনে আগুন ও ভাঙচুর করা হয়েছে। রেলে নাশকতা হয়েছে ৫ দফায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: