শনিবার, ৬ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

২৯ রোহিঙ্গা মিয়ানমারে ফিরেছে, জানেই না বাংলাদেশ



নিউজ ডেস্ক:: বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া ২৯ রোহিঙ্গা স্বেচ্ছায় নিজ দেশ মিয়ানমারে ফিরে গেছে বলে দাবি করেছে দেশটির ঢাকার দূতাবাস। মঙ্গলবার মিয়ানমারের দূতাবাসের ফেসবুক পেজে ওই রোহিঙ্গাদের ছবিসহ একটি পোস্ট দেয়া হয়। তবে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, এ সম্পর্কে কিছুই জানে না বাংলাদেশ। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন হলে তা দুই দেশের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতেই হবে।

মিয়ানমার দূতাবাসের ফেসবুক পেজে জানানো দেশটির তাং পিয়ানো লেটো রিসেপশন সেন্টারের মাধ্যমে মিয়ানমারে বাংলাদেশ থেকে তারা ফিরেছেন। এ সময় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, সমাজকল্যাণ, ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা তাদের অভিবাদন জানান।

মিয়ানমারের দাবি, এ পর্যন্ত ৩৫১ রোহিঙ্গা স্বেচ্ছায় নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন করেছে।যারা ফিরে গেছে তারা মিয়ানমারে ক্যাম্পে বসবাস করছে জানিয়ে দূতাবাস জানিয়েছে বাংলাদেশ থেকে আরও অনেকেই ফিরে যেতে চায়। মিয়ানমার দূতাবাস জানায়, স্বেচ্ছায় ফিরে যাওয়া রোহিঙ্গাদের প্রতিমাসে চাল, রান্নার তেল এবং খাবার দেয়া হচ্ছে।

ফেসবুকের ওই পোস্টে আরও বলা হয়, মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিরাপদ, মসৃণ ও স্থায়ী করতে বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সব সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে, যা জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে হবে।

উল্লেখ্য, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর অভিযানের মুখে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর দেশটির রাখাইন রাজ্য থেকে পালিয়ে ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা কক্সবাজারের টেকনাফ ও উখিয়ার বিভিন্ন শিবিরে আশ্রয় নেয়। বর্তমানে বাংলাদেশ ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গার আশ্রয়দাতা। বারবার প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও তাদের ফেরত নিচ্ছে না মিয়ানমার।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: