শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

হবিগঞ্জের খোয়াই নদীতে উচ্ছেদ অভিযান শুরু



হবিগঞ্জ সংবাদদাতা:: হবিগঞ্জবাসীর বহুল কাঙ্ক্ষিত পুরনো খোয়াই নদীর অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ অভিযান আজ সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হয়েছে। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে মাহমুদাবাদ এলাকা থেকে উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথম দিনে ডায়াবেটিক হাসপাতালের পেছন থেকে প্রতিবন্ধী স্কুল পর্যন্ত অভিযান চালানো হয়। জানা গেছে, উচ্ছেদের খবর পেয়ে অনেকেই নিজ উদ্যোগে নিজেদের স্থাপনা ভেঙে ফেলছেন।

উল্লেখ্য, হবিগঞ্জ জেলা শহরকে বন্যার কবল থেকে রক্ষা করতে ১৯৭৭-৭৮ সালে মাছুলিয়া থেকে কামড়াপুর পর্যন্ত স্বেচ্ছাশ্রমে নদীর গতিপথ পরিবর্তন করা হয়। এরপর থেকে নদীর পুরনো অংশটি পরিত্যক্ত হয়ে পড়লে তা দখল করে নেয় স্থানীয় বাসিন্দারা। এতে অস্তিত্ব হারিয়ে ফেলে নদীটি। নদীতে গড়ে তোলা হয়েছে স্কুল, উপাসনালয়সহ বিশাল অট্টালিকাও।

গতকাল সোমবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় আজ মঙ্গলবার থেকে নদী উদ্ধারে অবৈধ দখল উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। দীর্ঘদিন ধরে জেলা শহরবাসী নদীটি উদ্ধারের দাবিতে বিক্ষোভ, মানববন্ধনসহ আন্দোলন করে আসছিলেন। বিভিন্ন সময় জাতীয় পর্যায়ের পরিবেশ আন্দোলনকারী নেতৃবৃন্দও এসে সংহতি প্রকাশ করেছেন। অবশেষে জেলা প্রশাসন নদীটির অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদের উদ্যোগ নিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: