রবিবার, ৭ মার্চ ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «  

সুনামগঞ্জে নার্সের ‘ভুলে’ শিশুর মৃত্যু



নিউজ ডেস্ক:: সুনামগঞ্জে নার্সের ভুলে পাঁচ মাসের এক শিশুর মারা যাওয়ার অভিযোগ করেছে তার পরিবার। বুধবার (২৮ আগস্ট) সন্ধ্যায় সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে এই ঘটনা ঘটেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ায় মঙ্গলবার সকালে তানভির আহমেদ নামে পাঁচ মাস বয়সী ওই শিশুটিকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর আগে তার পরিবার শিশু চিকিৎসক এনামুল হককে ব্যক্তিগত চেম্বারে দেখালে তিনি শিশুটিকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশনা দেন। এ সময় সেখানে কর্তব্যরত নার্সরা ডা. এনামুল হকের প্রেসক্রিপশন না দেখে আরেকজনের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী সেবা দেন।

এ সময় শিশুটির অবস্থার অবনতি হলেও তাকে কোনো রকমের উন্নত চিকিৎসা দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন তার পরিবার। এদিকে বুধবার সন্ধ্যায় শিশুটির অবস্থা আরও খারাপ হলে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানে নেয়ার পরে শিশুটি মারা যায়।

শিশুটির বাবা শফিনূর মিয়া বলেন, মঙ্গলবার ডা. এনামুল হকের কাছে ছেলেকে দেখাই। তিনি নিউমোনিয়া হয়েছে জানিয়ে তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করার কথা বলেন। কিন্তু সেখানে নেয়ার পর আমার ছেলেকে ভুল চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। নার্সরা ডা. এনামুল হকের চিকিৎসাপত্র না দেখে ডা. সামিউল হকের চিকিৎসাপত্র দেখে অন্য শিশুর চিকিৎসা আমার ছেলেকে দিয়েছে। তারা ভুল চিকিৎসা দিয়ে আমার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে।

আর শিশুটির মা তারাবুন বেগম বলেন, আমার বাচ্চাটা মঙ্গলবার রাত থেকেই কষ্ট করতেছে। আমি মাঝরাতে নার্সকে অনেকবার ডাকলেও তিনি আমাকে খুব বাজে ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং কিছু করতে পারবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন। আজ তাদের কারণে আমার ছেলে মারা গেল। আমি আল্লাহর কাছে এর বিচার দিলাম।

এদিকে এ ঘটনার পর সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে বিক্ষোভ করে নিহতের পরিবার। এ সময় তারা চিকিৎসক-নার্সসহ এ ঘটনায় জড়িত সবার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে জেলা সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাশ বলেন, এই ঘটনার পর তাৎক্ষণিকভাবে সে সময়ে দায়িত্বরত চিকিৎসক-নার্সকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া ডা. বিশ্বজিৎ গোলদারকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই ঘটনায় যদি কোনো ডাক্তার বা নার্স জড়িত থাকেন তাহলে তাকে অবশ্যই শাস্তির আওতায় আসতে হবে বলে জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: