শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «  

সালাম দিয়ে থামায়, চাকু দেখিয়ে কেড়ে নেয় সর্বস্ব



রাজধানীতে একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত ৪২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ শনিবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানিয়েছেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) মো. আবদুল বাতেন।

তিনি জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা ছিনতাইকারী ও সালাম পার্টি দলের সক্রিয় সদস্য। গ্রেপ্তারের সময় তাদের হেফাজত থেকে ৭৪টি বিভিন্ন কোম্পানির মোবাইল ফোন, একটি ট্যাব ও একটি ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত ১৩টি ছুরি ও দুটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়।

ডিবির এই কর্মকর্তা জানান, এই চক্রের সদস্যরা রাজধানীর সাতরাস্তা, নাবিস্কো, মহাখালী বাস টার্মিনাল, মহাখালী রেলক্রসিং, বনানী, গুলশান-১, গুলশান লিংক রোড, রামপুরা ব্রীজ, ধানমন্ডি, বংশাল, চকবাজার, কলাবাগান, গুলিস্তান, যাত্রাবাড়ী, সায়েদাবাদ, নিউমার্কেটসহ বিভিন্ন এলাকায় গলিপথগুলোতে যাতায়াতকারী রিকশা বা পায়ে হাঁটা যাত্রীদের ছুরি দেখিয়ে সর্বস্ব ছিনতাই করে।

এ জন্য তারা তাদের সুবিধামত কোনো স্থানে রিকশার যাত্রী অথবা পথচারীদের সালাম দেয়। এমনভাবে সালাম দেয় যেন তারা পরস্পর পরস্পরের পূর্ব পরিচিত। সালাম পেয়ে ওই পথচারী থামলে তারা কাছে গিয়ে চাকু দেখিয়ে ও ভয় দেখিয়ে সর্বস্ব কেড়ে নেয়।

আব্দুল বাতেন জানান, ছিনতাইকৃত মোবাইলগুলো তারা মোবাইল পার্টসের দোকানে বিক্রি করেন। ধরা পড়া ঠেকাতে দোকানদাররা এসব চোরাই মোবাইল কিনে ঠিকই, কিন্তু মোবাইল বিক্রি করে না। তারা চোরাই মোবাইলের ক্ষুদ্র যন্ত্রাংশ বিক্রি করে। এমনকি দোকানিরা মোবাইলের মাদারবোর্ড ও আইএমইআই নম্বর পাওয়া যাবে এমন পার্টসও বিক্রি করে না।

বেশ কয়েকটি ছিনতাইয়ের ঘটনার তদন্তে নেমে এ চক্রগুলোর সন্ধান পায় ডিবি। এর সঙ্গে জড়িত অন্যদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: