সোমবার, ১ মার্চ ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «  

সংসদে এমপিওভুক্ত নিয়ে যা বললেন আওয়ামী লীগ সাংসদ



নিউজ ডেস্ক:: শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তির বিষয়ে রাজনৈতিক নেতাদের সম্পৃক্ত করার দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম। সেই সঙ্গে স্বাস্থ্যসেবা গরিব মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হেলথ ইন্স্যুরেন্স চালুর আহ্বান জানান তিনি। বুধবার জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের উপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ দাবি জানান। সংসদের এ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

রফিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ অতি অল্প সময়ের মধ্যে মাথাপিছু আয় ২ হাজার মার্কিন ডলার অতিক্রম করবে, এই বছরের মধ্যেই করবে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর বাজেট ৮ গুণ বেড়েছে। আগামী বাজেট ৬ বা ৭ লাখ কোটি টাকার হবে। দেশে দারিদ্র্যের হার ৩২ ভাগ থেকে কমে ২১ ভাগে নেমে এসেছে। অতি দারিদ্র্যের হার ১১ শতাংশে নেমেছে। জিডিপি সাড়ে ৪ গুণ বেড়েছে। এটা কেউ ভাবতেও পারেনি।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্যখাতে উন্নয়ন হয়েছে, কিন্তু এখনও অনেক সমস্যা আছে। এই সমস্যাগুলো দূর করতে হবে। কয়েক বছর আগে ভারতে হেলথ ইন্স্যুরেন্স চালু করা হয়েছে। এতে দরিদ্র মানুষ উপকৃত হয়েছে। আমাদের অতি দ্রুত হেলথ ইন্স্যুরেন্স চালু করতে হবে। এটা করতে পারলে গরিব মানুষ খুব উপকৃত হবে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যে ক্রাইটেরিয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তি করা হচ্ছে সেটা ঠিক করতে রাজনৈতিক নেতাদের অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। এজন্য রাজনৈতিক নেতাদেরকেই জনগণের কাছে জবাবদিহিতা করতে হয়। সবগুলো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করতে হবে। এমপিওভুক্তির প্রক্রিয়ার সঙ্গে রাজনৈতিক নেতাদের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। কারণ এ বিষয়ে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের ব্যাপার আছে। সব প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করে প্রয়োজনে প্রতি বছর ইভেল্যুশন করার তাগিদ দেন তিনি।

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) রফিকুল ইসলাম বলেন, সর্বস্তরের নারীর ক্ষমতায়ন হতে হবে। শুধু কয়েকজন নারী গৌরবময় আসনে অধিষ্ঠিত হলে নারীর ক্ষমতায়ন হবে না। রাজনৈতিক দলগুলোর সর্বস্তরের কমিটিতে ২৫ ভাগ নারী নেতৃত্ব, স্থানীয় সরকার পর্যায়ে ২৫ নারীর নির্বাচিত হওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। কোনো প্রতিষ্ঠানে ৪০ ভাগ নারীর কর্মসংস্থানে ব্যবস্থা না করা হলে ওই প্রতিষ্ঠানকে সিআইপি (বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি) কার্ড না দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: