বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

শ্রীনিবাসনের ডেডলাইন ২৪ মে!



N-Srinivasanস্পোর্টস ডেস্ক :: ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বোর্ড অব কনট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই) প্রকাশ্যে এন শ্রীনিবাসনের বিরোধীতা করতে কোন রাখঢাক করছে না। আইসিসির চেয়ারম্যানের পদ থেকে তাকে বহিষ্কারের আগাম ইঙ্গিত দিলেন বিসিসিআই সচিব অনুরাগ ঠাকুর৷

সম্ভবত ২৪ মে আইপিএল ফাইনালের দিল বোর্ডের বিশেষ সাধারণ সভা ডেকে শ্রীনিবাসনকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বিসিসিআই৷ সেই অর্থে নিজেকে বাঁচানোর জন্য শ্রীনিবাসনের সামনে ডেডলাইন এখন ২৪ মে।

বোর্ড সচিব অনুরাগ ঠাকুর এই প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘বিশেষ সাধারণ সভায় সব কিছুর প্রমাণ চাইবে৷ আমরা কোনও লুকোচুরি চাই না৷ কাউকে দোষী পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে শাস্তি নেওয়া হবে৷’

শ্রীনিবাসনের সভাপতিত্বকালে বোর্ডের আর্থিক বিষয়ে বেশ কিছু অসঙ্গতি পাওয়া গিয়েছে বলে মনে করেন বোর্ড সচিব৷ গত মার্চে শ্রীনিবাসনের প্রার্থীকে হারিয়ে বোর্ড সচিব পদে জয়ী হন হিমাচলপ্রদেশ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট তথা বিজেপি সাংসদ অনুরাগ ঠাকুর৷ এর পর থেকেই অনুরাগ-শ্রীনিবাসনের মধ্যে আদায়-কাঁচকলা সম্পর্ক।

গত সপ্তাহের অনুরাগের সঙ্গে দিল্লিবাসী এক ক্রিকেট বুকির ছবি প্রকাশ করে বিসিসিআই সচিবকে সতর্ক করে আইসিসি৷ এ সবই আইসিসি চেয়ারম্যান শ্রীনিবাসনের ইশারায় হয়েছে বলে মনে করেন বিসিসিআই সচিব৷ এরপর শ্রীনিবাসনের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করেন অনুরাগ৷

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: