শনিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

শাহপরানে ৭৭ বছরের বৃদ্ধ কর্তৃক নাবালিকা ধর্ষণের ঘটনা সাজানো!



নিউজ ডেস্ক:: শাহপরানের ইসলামাবাদে ৭৭ বছরের বয়োবৃদ্ধ কর্তৃক ১১ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনাকে সাজানো বলে দাবি করেছেন শেখ মো: ছুরত আলী। ঘটনার পিছনের ঘটনা উল্লেখ করে শনিবার (১৩ এপ্রিল) দুপুরে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ছুরত আলী দাবি করেন তিনি বয়োবৃদ্দ। ৭৭ বছর বয়সে নানা জটিল রোগে আক্রান্ত। ভুমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মুজিবুর রহমান নামের একজন লোক শেখ ছুরত আলীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে ধর্ষণ মামলা করায়।

চলতি মাসের ৩ তারিখে ইসলামাবাদে নাবালিকা কিশোরীকে শেখ মো: ছুরত আলী কর্তৃক ধর্ষিত হয়েছেন জানিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন মেয়ের বাবা আল আমিন। ঐ ঘটনায় শাহপরান থানা পুলিশ ধর্ষণ মামলার এজাহারটি নথিভুক্ত করেন। শেখ ছুরত আলীর দাবি তিনি ২০০৪ সালে তৎকালীন কতোয়ালী থানায় বিয়ানীবাজার উপজেলার শেরপুর গ্রামের মৃত রফিক উদ্দিনের ছেলে মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে থানায় একটি জালিয়াতি মামলা দায়ের করেন।

এরপর থেকে আর থেমে নেই মুজিবুর রহমান। একে একে স্বজন বা কেয়ারটেকার দিয়ে অন্তত ৭/৮টি মামলা দায়ের করায় ছুরত আলীর বিরুদ্ধে। কিন্তু বেশিরভাগ মামলা পুলিশি তদন্তে সত্যতা না পাওয়ায় ফাইনাল রিপোর্ট দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। এছাড়া কিছু মামলা খারিজ করে দেন আদালত।

এছাড়া ছুরত আলীও বাদী হয়ে মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। সম্প্রতি একটি মামলায় আদালতের নির্দেশে দুদুক তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে রিপোর্ট দেয়। এরপর আরো হিংস্র হয়ে উঠেন মুজিবুর রহমান। তখন আপোষ মিমংশারও প্রস্তাব দিয়েছিলেন তিনি।

আপোষে অস্বীকৃতি জানালে সর্বশেষ মুজিবুর রহমান তার চলমান ষড়যন্ত্রেও অংশ হিসেবে তার কেয়ারটেকার আল আমিনকে দিয়ে ৭৭ বছরের বয়োবৃদ্দ তার নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণ শেখ ছুরত আলী কর্তৃক ধর্ষণ করেছে মর্মে মামলা দায়ের করায়।

শেখ ছুরত আলী পুলিশ কমিশনারের কাছে দেয়া অভিযোগপত্রে সাজানো ধর্ষণ মামলার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেন। একই সাথে তিনি ডিএনএ টেস্ট করলে তার বিরুদ্ধে দায়ের করা ধর্ষণের অভিযোগ মিথ্যা প্রমানিত হবে বলেও জানান।

শেখ ছুরত আলী দাবি করেন, তাকে বিভিন্নভাবে হয়রানী করা হচ্ছে। পরিবারের সদস্যদের হুমকী দামকি দিয়ে যাচ্ছে মুজিবুর রহমানে লোকজন। তিনি এই হয়রানী থেকে মুক্তি চান।উল্লেখ্য, শেখ ছুরত আলী হাইকোর্ট থেকে ৬ সপ্তাহের আগাম জামিনে রয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: