রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ চৈত্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

রোহিঙ্গা সমাবেশের বিষয়ে জানতো না সরকার: পররাষ্ট্রমন্ত্রী



নিউজ ডেস্ক:: গতকাল রোববার (২৫ আগস্ট) কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত রোহিঙ্গা সমাবেশের বিষয়ে সরকার আগে থেকে কিছু জানতো না বলে দাবি করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। সোমবার রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় অংশগ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত রোহিঙ্গা সমাবেশের বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেন, প্রকৃতপক্ষে আমরা টেলিভিশন দেখে এ তথ্য পেয়েছি। আমরা জেনেছি তারা দোয়া করার জন্য এই সমাবেশ করেছে। সেজন্য আপত্তি করা হয়নি। সেখানে অনেক দাবি-দাওয়া এসেছে। এখন আমরা নতুন করে চিন্তাভাবনা করবো কীভাবে ইস্যুটা মোকাবিলা করা যায়।

ভবিষ্যতে আন্দোলনের বিষয়ে তিনি বলেন, আন্দোলন যাতে করতে না পারে সেজন্য অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেবো। আমাদের সঙ্গে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কথা হয়েছে। কি ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে সে বিষয়ে সবার সঙ্গে আলোচনা করছি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা তাদের নিজ ভূমিতে ফেরত না যেতে চাওয়ার জন্য মিয়ানমার দায়ী। রোহিঙ্গাদের মধ্যে এখনো বিশ্বাসের ঘাটতি রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা (মিয়ানমার) রোহিঙ্গাদের বোঝাতে ব্যর্থ হয়েছে।

এর আগে, ২৫ আগস্টকে ‘গণহত্যা দিবস’ উল্লেখ করে রোববার হাজার হাজার রোহিঙ্গা কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শিবিরে সমাবেশ করে। সমাবেশ থেকে নাগরিকত্ব দেয়া, নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা, নিজেদের ভিটেবাড়ি ফিরিয়ে দেয়া, ক্ষতিপূরণ দেয়া এবং মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের হত্যা ও নির্যাতনকারীদের আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার করার দাবি জানানো হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: