শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

রক্তাক্ত শ্রীলঙ্কায় ফের বিস্ফোরণ, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৮৫



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: শ্রীলঙ্কায় ছয়টি স্থাপনায় ভয়াবহ বোমা হামলার পর আবারো একটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। দেশটির রাজধানী কলম্বোর কাছের দেহিওয়ালা এলাকায় সপ্তম এই বিস্ফোরণে অন্তত দু’জন নিহত হয়েছে বলে ফরাসী বার্তা সংস্থা এএফপি।

ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। এর আগে রোববার সকালের দিকে রাজধানী কলম্বোর তিনটি বিলাসবহুল হোটেল ও তিনটি গীর্জায় মোট ছয়টি বিস্ফোরণ হয়এতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৮৫ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন আরো চার শতাধিক।

ইস্টার সানডের সকালে কলম্বোর বিলাসবহুল সিনামুন গ্রান্ড, শাঙ্গরি-লা ও কিনসবুরি হোটেল ও কলম্বোর সেন্ট অ্যান্থনি গীর্জা, নেগোমবোর সেন্ট সেবাস্তিয়ান গীর্জা ও বাত্তিকালোয়ার জিওন গীর্জায় ওই হামলা হয়েছে। দেশটির পুলিশের প্রধান বলেছেন, তিনি এই হামলার ব্যাপারে ১০দিন আগেই সরকারকেই সতর্ক করে দিয়েছিলেন।

তিনি দেশটির প্রধান এবং প্রসিদ্ধ গীর্জাগুলো ইস্টার সানডের দিনে আক্রান্ত হতে পারে বলে ওই সতর্কবার্তায় জানান। ফরাসী বার্তাসংস্থা এএফপি পুলিশ কর্মকর্তার সতর্কবার্তার একটি কপি হাতে পেয়েছে।

রোববার সকাল ৮টার দিকে প্রথম বিস্ফোরণের খবর আসে। সময় যত গড়িয়ে যাচ্ছে নিহতের সংখ্যা ততই লাফিয়ে বাড়ছে। দেশটির ইতিহাসে এই হামলাকে কালো অধ্যায় হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। হামলার পর রাজধানী কলম্বো-সহ পুরো দেশে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

আক্রান্ত গীর্জা ও হোটেলে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। হামলায় নিহতদের মধ্যে অন্তত ৩৫ জন বিদেশি নাগরিক রয়েছেন। এই হামলায় কোনো বাংলাদেশি হতাহত হয়েছেন কি-না তা এখনো জানা যায়নি।

স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী কিংবা ব্যক্তি রোববারের এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে হামলার পেছনে আত্মঘাতী বোমারুরা জড়িত থাকতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: