শুক্রবার, ৭ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «  

যাত্রীর ফেলে যাওয়া ২০ লাখ টাকা ফেরত দিলেন রিকশাচালক



নিউজ ডেস্ক:: রিকশাচালক লাল মিয়ার সততায় অভিভূত হলেন সার ব্যবসায়ী রাজিব প্রাসাদ। রিকশা চালকের কাছ থেকে ২০ লাখ টাকা ফেরত পেয়ে খুশি হয়ে রিকশা ও মোবাইল পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দিলেনও তৎক্ষণাৎ। শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) সকালে বগুড়া শহরের সাতমাথায় এমন ঘটনা ঘটে। এসময় পুলিশ সুপারের উপস্থিতিতে টাকাগুলো বুঝে নেন সার ব্যবসায়ী। আগামী রবিবার (১৭ নভেম্বর) লাল মিয়াকে রিকশা ও মোবাইল ফোন উপহার দেবেন জানান ওই ব্যবসায়ী।

রিকশা চালক লাল মিয়া (৫৫) শহরের মালগ্রামের মধ্যপাড়ার মৃত মমতাজ উদ্দিনের ছেলে। আর সার ব্যবসায়ী রাজিব প্রসাদ নন্দীগ্রাম উপজেলার রণবঘার দ্বীননাথ প্রসাদের ছেলে।

পুলিশে জানায়, ‘প্রসাদ অ্যান্ড সন্স’ নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার জন্য শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে রাজিব প্রসাদ বাসার নিচ থেকে লাল মিয়ার রিকশায় ওঠেন। রাজিব প্রসাদের কাছে একটি ব্যাগে প্রায় ২০ লাখ টাকা ও অন্য দুই ব্যাগে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ছিল। রাজিব প্রসাদ রিকশা থেকে নেমে বাসে ওঠেন। কিছুক্ষণ পর তার খেয়াল হয়, টাকার ব্যাগ রিকশায় ফেলে এসেছেন। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বাস থেকে নামেন এবং বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করেন। সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান রিকশাচালক লাল মিয়াকে খুঁজে বের করার দায়িত্ব দেন এসআই জহুরুল ইসলামকে। এসআই জহুরুল ইসলাম শহরের গোগাইল রোড এলাকার একটি দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে তাকে খুঁজতে থাকেন।

লাল মিয়া জানান, যাত্রীকে নামিয়ে দিয়ে ব্যাগটি তিনি দেখতে পান। ব্যাগ খুলে এত টাকা দেখে সে বয় পেয়ে যায়। টাকার ব্যাগ বাসায় রেখে মালিককে খুঁজতে থাকেন। খুঁজে পাওয়ার আগেই পুলিশ তার সাথে যোগাযোগ করেন। ব্যাগটি তার কাছ থেকে ফেরত নেয়।

বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজামান জানান, লাল মিয়ার সততায় তারা অভিভূত হয়েছেন। টাকা ফেরত পেয়ে খুশি হয়েছেন ব্যবসায়ী রাজিব প্রসাদ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: