মঙ্গলবার, ৪ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «  

মৌলভীবাজারে ৪ ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা



downloadনিউজ ডেস্ক :: মৌলভীবাজারে ট্রাফিক পুলিশ ও ছাত্রলীগ কর্মীদের মধ্যে হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনায় ৪ ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এর মধ্যে মৌলভীবাজার কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিমও আছেন। পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে শুক্রবার কোর্টে চালান করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, এক ছাত্রলীগ কর্মী ব্যাটারিচালিত রিকশা নিয়ে মৌলভীবাজার শহরের চৌমোহনা এলাকা দিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় রিকশাচালক ট্রাফিক পুলিশের সিগন্যাল অমান্য করায় কর্তব্যরত টাফিক কনস্টেবল কৃষ্ণ তালুকদার (২৮) তাকে গালমন্দ করে শারীরিক নির্যাতন করে। রিকশাযাত্রী ছাত্রলীগ কর্মী এর পতিবাদ করলে তার সঙ্গেও টাফিক পুলিশের ওই সদস্য ও সহযোগী রইছ অশালীন আচরণ করে। পরে ছাত্রলীগ কর্মী এবং তার সহযোগীরা ট্রাফিক পুলিশের ওপর হামলা করে। এই সময় উভয় পক্ষের হাতাহাতিতে আহত হন ট্রাফিক কনস্টেবল কৃষ্ণ, রইছ, এক ছাত্রলীগ কর্মী ও রিকশাচালক।
পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মৌলভীবাজার কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করীম রেজা (২৭), ইয়াছিন মিয়া (২৫), আজিজুর রহমান (২৩) ও মোস্তাকিন মিয়া (২৪) কে আটক করে পুলিশ। শুক্রবার ট্রাফিক কনস্টেবল কৃষ্ণ তালুকদার বাদী হয়ে মামলা করে। মডেল থানা পুলিশ আটককৃতদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে কোর্টে চালান করেন। মৌলভীবাজার মডেল থানার কর্তব্যরত কর্মকর্তা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: