বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই



যুক্তরাষ্ট্রে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস। ইতোমধ্যেই সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ছাড়িয়ে গেছে, মারা গেছেন চার হাজারেরও বেশি। দেশটিতে করোনায় সবচেয়ে বেশি ভুগছে নিউ ইয়র্ক ও নিউ জার্সি। তবে হঠাৎ করেই তৃতীয় হটস্পট হয়ে উঠেছে মিশিগান।

এ অঙ্গরাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৭৮ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৩৭ জন। এছাড়া, নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৭১৯ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ১০ হাজার।

মিশিগানে সবচেয়ে বেশি করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে ডেট্রয়েটের কাছাকাছি দক্ষিণপূর্ব এলাকায়। এ অঞ্চলে সমন্বিত স্বাস্থ্যসেবা দানকারী সংস্থা হেনরি ফোর্ড হেলথ সিস্টেম জানিয়েছে, অঙ্গরাজ্যটিতে তাদের ছয়টি হাসপাতালের অন্তত একটিতে রোগী ধারণক্ষমতা পূরণ হয়ে গেছে।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে চিফ ক্লিনিক্যাল অফিসার ডা. আদনান মুনকারা বলেন, আমরা আইসিইউ (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) সামর্থ্যে ভারসাম্য রাখার চেষ্টা করছি, প্রয়োজনে রোগীদের স্থানান্তর করছি। আমাদের নিবিড় পরিচর্যা হাসপাতালগুলোর মধ্যে হেনরি ফোর্ড ম্যাকম্ব হাসপাতালের ধারণক্ষমতা পূরণ হয়ে গেছে। আমরা অতিরিক্ত রোগীদের অন্যান্য হাসপাতালে স্থানান্তরের চেষ্টা করছি।

জানা গেছে, হেনরি ফোর্ড হেলথ সিস্টেমের বাকি পাঁচটি হাসপাতালের অবস্থাও অনেকই একই। গোটা ব্যবস্থাপনার অধীনে সেখানে আইসিইউ রয়েছে মোট ৩৬০টি। কিন্তু স্থানীয় সময় বুধবার পর্যন্ত হাসপাতালগুলোতে অন্তত ৬৮০ জন ভর্তি রয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৯০৮ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ হাজারেরও বেশি। এদিন দেশটিতে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন অন্তত ২৫ হাজার ৬৭৬ জন।

যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি করোনায় ভুক্তভোগী নিউ ইয়র্ক। গোটা দেশের প্রায় ৪০ শতাংশ রোগীই এ অঙ্গরাজ্যের। বুধবার এ অঞ্চলে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৯১৭ জন। এ নিয়ে সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৩ হাজার ৭১২ জন। এদিন সেখানে মারা গেছেন আরও ৩১৯ জন। ফলে শুধু নিউ ইয়র্কেই মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৯৪১ জন।সূত্র : জাগো নিউজ

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: