রবিবার, ৫ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Sex Cams
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

মারাত্মক জলাবদ্ধতার শিকার উপশহরবাসী, বন্ধ রাখা হয়েছে সবকটি স্কুল



নিউজ ডেস্ক:: সুরমা নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় সিলেটের অভিজাত এলাকা উপশহর পানিতে তলিয়ে যায়। বৃষ্টির পানি জমে উঠে রাস্তাঘাট ডুবে যায়, তলিয়ে যায় বাসা-বাড়ি, দোকানপাট ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। তাই উপশহরের সবকটি স্কুল বন্ধ রাখা হয়েছে।

গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টিতে এবারও মারাত্মক জলাবদ্ধতার শিকার হয়েছেন উপশহরবাসী। বৃষ্টির পানি জমে শুক্রবার রাতেই উপশহরের মূল সড়ক তলিয়ে যায়। আবাসিক এলাকাটির ১০টি ব্লকের মধ্যে দুটি ব্লকের ৬টি রোডের তিনশতাধিক বাসার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। পানি উঠায় অনেক বাসায় বন্ধ হয়ে গেছে রান্নাবান্নাসহ গৃহস্থালির সকল কাজ। জরুরি প্রয়োজনেও বের হতে পারছেন না বাসার নারী, শিশু ও বয়স্ক সদস্যরা। উপশহর সি ব্লকের ৪১ নম্বর রোডের বাসিন্দা শাকিল জামান জানান, শুক্রবার রাত থেকে তার বাসার গ্যারেজ পর্যন্ত পানি উঠেছে। রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় জরুরি কাজেও তিনি সারাদিন বাসা থেকে বের হতে পারেননি।

ওয়ার্ড কাউন্সিলর এডভোকেট সালেহ আহমদ সেলিম জানান, পানি বেশী বৃদ্ধি পাওয়ায় উপশহরের সবকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া পানিবাহিত রোগ থেকে রক্ষা পেতে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান ও বিশুদ্ধ খাবার খাওয়ার অনুরোধ করেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: