মঙ্গলবার, ৪ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «  

মাধ্যমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা চলতি মাসেই!



নিউজ ডেস্ক:: সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের আবেদন কার্যক্রম শেষ হয় সাত মাস আগে। কিন্তু এতোদিন পার হওয়ার পরও এ মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার দিন-তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি। ফলে প্রায় আড়াই লাখ আবেদনকারী নিয়োগ পরীক্ষার অপেক্ষায় দিন পার করছেন।

তবে চলতি জুন মাসের শেষের দিকে এ পরীক্ষার আয়োজন করা হতে পারে বলে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (বিপিএসসি) সূত্রে জানা গেছে।

এ পরীক্ষা আয়োজনের বিষয়ে জানতে চাইলে বিপিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (নন-ক্যাডার) নজরুল ইসলাম সম্প্রতি গণমাধ্যমকে বলেন, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার দিন-তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি। তবে পরীক্ষা সংক্রান্ত অন্যান্য কার্যক্রম শেষ করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা র দিন নির্ধারণে পিএসসিতে এক সভায় আলোচনা হয়েছে। সভায় এই পরীক্ষা আগামী জুনের শেষের দিকে নেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করছি। দ্রুত এ পরীক্ষার দিন ধার্য করতে ফাইল তোলা হবে। এরপর পরীক্ষার দিন নির্ধারণ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

জানা গেছে, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদটি দ্বিতীয় শ্রেণির মর্যাদা দেয়ার পরে গত বছর প্রথমবারের মতো সরাসরি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিপিএসসি। গত বছরের ১০ সেপ্টেম্বর থেকে আবেদন গ্রহণ শুরু হয়ে ৮ অক্টোবর শেষ হয়।

গত বছরের ৯ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, বাংলায় ৩৬৫ জন শিক্ষক, ইংরেজিতে ১০৬, গণিতে ২০৫, সামাজিক বিজ্ঞানে ৮৩, ভৌতবিজ্ঞানে ১০, জীববিজ্ঞানে ১১৮, ব্যবসায় শিক্ষায় ৮, ভূগোলে ৫৪, চারুকলায় ৯২, শারীরিক শিক্ষায় ৯৩, ইসলাম শিক্ষায় ১৭২ এবং কৃষি শিক্ষায় ৭২ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। মোট ১,৩৭৮ পদের বিপরীতে ২ লাখ ৩৫ হাজারের বেশি আবেদন জমা পড়ে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: