রবিবার, ৭ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে এবার নিজেই ভয় ছড়ালেন থমাস



পড়েছিলেন ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায়। গত ১৬ ফেব্রুয়ারিই বড় ধরনের অঘটন ঘটে যেতে পারতো ওসানে থমাসের জীবনে। জ্যামাইকায় দুটি গাড়ির মুখোমুখি সংর্ঘষের ঘটনায় অল্পের জন্য বেঁচে যান। আঘাত পেয়ে ভর্তি ছিলেন হাসপাতালে।

তবে ভয়ের সেই স্মৃতি বুকে নিয়ে এবার নিজেই ভয় ছড়ালেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের দীর্ঘদেহী এই পেসার। হাসপাতাল থেকে ফিরেই বল হাতে আগুন ঝরালেন। তার আগুনে বোলিংয়ের সামনে পুড়ে ছাই হলো শ্রীলঙ্কা। বুধবার পাল্লেকেলেতে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে লঙ্কানদের ২৫ রানে হারিয়েছে ক্যারিবীয়রা।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে লেন্ডল সিমন্সের ব্যাটে চড়ে ৪ উইকেটে ১৯৬ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সিমন্স ৫১ বলে ৭ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় খেলেন হার না মানা ৬৭ রানের ইনিংস। আরেক ওপেনার ব্রেন্ডন কিংয়ের ব্যাট থেকে আসে ২৫ বলে ৩৩ রান।

পরের দিকে ঝড় তুলেন আন্দ্রে রাসেল আর কাইরন পোলার্ড। রাসেল ১৪ বলে ২ চার আর ৪ ছক্কায় করেন ৩৫ রান। অধিনায়ক পোলার্ড ১৫ বলে ৩ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় খেলেন ৩৪ রানের আরেকটি ঝড়ো ইনিংস।

জবাবে ১৭ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে শুরুতেই বিপদে পড়ে শ্রীলঙ্কা। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে এসে চার বলের মধ্যে আভিষ্কা ফার্নান্ডো (৭), শেহান জয়সুরিয়া (০) আর কুশল মেন্ডিসকে (০) তুলে নেন থমাস। পরে দাসুন শানাকার উইকেটটিও নেন দীর্ঘকায় এই পেসার। ৫৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বড় পরাজয়ের শঙ্কায় তখন স্বাগতিকরা।

সেখান থেকে দলকে লড়াইয়ে ফেরান ওপেনার কুশল পেরেরা আর হাসারাঙ্গা ডি সিলভা। ষষ্ঠ উইকেটে ৮৭ রানের জুটি গড়েন তারা। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। দুই ওভারের ব্যবধানে হাসারাঙ্গা (৩৪ বলে ৪৪) আর পেরেরাকে (৩৮ বলে ৬৬) হারিয়ে বসে লঙ্কানরা। শেষতক ইনিংসের ৫ বল বাকি থাকতেই ১৭১ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিক দল।

দুর্ঘটনার পর মাঠে ফেরা ওসানে থমাস ৩ ওভারে ২৮ রান খরচায় একাই নেন ৫টি উইকেট। ২টি উইকেট পান রভম্যান পাওয়েল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: