মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

বৃহস্পতিবার সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরছেন ৩৮৩ বাংলাদেশি



করোনা ঝুঁকির মধ্যেই সৌদি আরব থেকে বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) ঢাকায় আসছেন ৩৮৩ বাংলাদেশি। সৌদি এয়ারলাইনসের একটি বিশেষ ফ্লাইটে তারা বিকালে দেশে এসে পৌঁছাবেন। বিষয়টি সৌদি আরবের রিয়াদে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে। সৌদি সরকার মানবিক দিক বিবেচনা করে তাদের পাঠাচ্ছে বলে জানা গেছে।

যুক্তরাজ্য বাদে ইউরোপের দেশগুলোতে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ফ্লাইট চলাচল বন্ধ ঘোষণা করলেও সৌদি আরবে বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেয়নি বাংলাদেশ সরকার।

সৌদি আরবের রিয়াদে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে জানা যায়, সৌদির ডিপোর্টেশন সেন্টার থেকে এই ৩৮৩ জন বাংলাদেশিকে দেশে আসার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এরা রিয়াদ ও দাম্মামের ডিপোর্টেশন সেন্টারে অবস্থান করছিলেন। তাদের সৌদি এয়ারলাইনসের একটি বিশেষ ফ্লাইট এসভি ৩৮০৫ এসব বাংলাদেশি যাত্রীকে নিয়ে সকাল ৯টায় কিং খালেদ বিমানবন্দর থেকে রওনা দেবে। বিকাল সাড়ে ৫টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছানোর কথা তাদের।

সূত্র জানায়, সৌদি সরকার দাম্মাম ও রিয়াদের ডিপোর্টেশন সেন্টারে অপেক্ষমাণ সব বাংলাদেশিকে দেশে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। একটি বিশেষ বিমান ভাড়া করে তাদের দেশে পাঠাচ্ছে দেশটি।

রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের এক কর্মকর্তা জানান, সৌদিতে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের দেশে ফিরতে বাধা নেই। সৌদি সরকার এখানে সরকারি এবং বেসরকারি দফতর বন্ধ ঘোষণা করেছে। তাতে ডিপোর্টেশন সেন্টারে এই লোকগুলোর থাকা কিছুটা অমানবিক। তাই মানবিক দিক বিবেচনা করে তাদের একটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশে পাঠানো হচ্ছে। ডিপোর্টেশন সেন্টারে অবস্থানরত কারও শারীরিক কোনও সমস্যা নেই বলেও জানান তিনি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, সৌদি আরব থেকে দেশে আসতে কোনও বাধা নেই।

প্রবাসী এই কর্মীদের দেশে ফেরার বিষয়ে অবগত করে চিঠি দিয়েছে দূতাবাস। সেখানে বলা হয়, সৌদি আরবের (রিয়াদ- দাম্মাম) ডিপোর্টেশন সেন্টার থেকে ৩৮৩ জন প্রবাসী বাংলাদেশি নিয়ে সৌদি এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইট (ফ্লাইট নং SV3805) আগামী ১৯ মার্চ স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবে এবং স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে ৫টায় ঢাকায় পৌঁছাবে। বিমানবন্দরে কর্মীদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতার জন্য বিমানবন্দর হেল্পডেস্ককে নির্দেশনা প্রদানের জন্য অনুরোধ করা হলো।

এদিকে, গত সোমবার (১৬ মার্চ) মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত হয়, বিদেশ ফেরতদের অবশ্যই ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এর ব্যত্যয় ঘটলে তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উল্লেখ্য, সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন ২০১৮ অনুযায়ী কোনও ব্যক্তি এই সিদ্ধান্ত না মানলে সর্বোচ্চ তিন মাসের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

এদিকে, এ আদেশ অমান্য করায় আজ বুধবার ১৫ জেলায় ৩৪ ব্যক্তিকে বিভিন্ন দণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: