বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

বুশ সিআইএ’র জিজ্ঞাসাবদ পদ্ধতি সম্পর্কে জানতেন: ডিক চেনি



dik-chenyঅনলাইন ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা বাহিনী সিআইএ’র জিজ্ঞাসাবাদে বন্দী নির্যাতন বিষয়ে মার্কিন সিনেটের সাম্প্রতিক প্রতিবেদন নিয়ে হৈচৈ হচ্ছে। এমন সময়ে সিআইএর বিতর্কিত জিজ্ঞাসাবাদ পদ্ধতি নিয়ে ‘বোমা ফাটালেন’ তৎকালীন মার্কিন প্রশাসনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ডিক চেনি।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ডিক চেনি বলেন,তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ সিআইএর জিজ্ঞাসাবদ পদ্ধতি সম্পর্কে জানতেন।

সিআইএর জিজ্ঞাসাবাদ বিষয়ে মার্কিন সিনেটের প্রতিবেদনটি পড়েননি বলে স্বীকার করলেও চেনি প্রতিবেদনটিকে ‘ভুলে ভরা’ ও ‘বাজে কথায় ভরপুর’ বলে মন্তব্য করেন।

জিজ্ঞাসাবাদ পদ্ধতি সঠিক ছিল বলে সিআইএর পক্ষে সাফাই গেয়ে তিনি বলেন, এই জিজ্ঞাসাবাদ অনেকের জীবন বাঁচিয়েছে। আর এজন্য সিআইএ প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য।

গত মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটের ইনটেলিজেন্স কমিটি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে ২০০১ সালের টুইন টাওয়ারে হামলার পর সন্ত্রাসবাদ ও আল-কায়েদার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে আটক ব্যক্তিদের ওপর সিআইএর নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরা হয়।

প্রতিবেদনের সারমর্মে বলা হয়,বন্দীদের জিজ্ঞাসাবাদ বিষয়ে সিআইএ যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিবিদদের ভুল পথে পরিচালিত করেছে। আল কায়েদা সন্দেহে আটকদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে সিআইএ ‘নিষ্ঠুর’ ও ‘অকার্যকর’ পদ্ধতি ব্যবহার করেছে। আর এসব জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে পাওয়া তথ্য সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় কোনো কাজে আসেনি।

সাক্ষাৎকারে ডিক চেনি আরও বলেন, বুশ সিআইএর জিজ্ঞাসাবাদের পদ্ধতি বিষয়ে ‘সম্পূর্ণ অবগত’ ছিলেন। এ বিষয়ে তার যতটুকু জানার দরকার ছিল এবং যতটুকু তিনি জানতে চেয়েছেন তার সবই তিনি জানতেন। বিষয়টিকে তার কাছ থেকে দূরে সরিয়ে রাখতে আমার কোনো প্রচেষ্টাই ছিল না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: