সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

বিড়াল কালো বা ধলা বড় কথা নয়, দেখতে হবে ইঁদুর ধরে কী না : সুরঞ্জিত



4. sen babuনিউজ ডেস্ক::
‘দেশ অর্থনৈতিকভাবে এগুচ্ছে কিন্তু রাজনৈতিকভাবে পেছাচ্ছে’- সমালোচকদের এমন অভিযোগের জবাবে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেছেন, বিড়াল কালো বা ধলা হোক সেটা বড় কথা নয়। মূল কথা হলো দেখতে হবে বিড়াল ইঁদুর ধরে কী না?’
এসময় দেশ অর্থনৈতিকভাবে এগোলেও রাজনৈতিকভাবে কিভাবে পিছিয়ে থাকে এমন প্রশ্নও রাখেন সাবেক এই মন্ত্রী।

সোমবার দুপুরে কাকরাইলের ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় সুরঞ্জিত এসব কথা বলেন।
প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রাজ্জাক স্মরণে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে নৌকা সমর্থক গোষ্ঠী।
খালেদা জিয়াকে জামায়তের যুদ্ধাপরাধীদের সঙ্গ ত্যাগ করার আহ্বান জানিয়ে সুরঞ্জিত বলেন, আপনাকে(খালেদা জিয়া) বলছি, জামায়াতকে ত্যাগ করুন। জামায়াতকে বলবো যুদ্ধাপরাধীদের ত্যাগ করুন। উভয়কে বলবো, যুদ্ধাপরাধের বিচারে সহায়তা করেন।

তিনি বলেন, আন্দোলন করলে আপনার জন্য পথ খোলা আছে। তবে আন্দোলন সহিংস হতে পারবে না। আন্দোলন হতে হবে গণতান্ত্রিক, শাসনতান্ত্রিক ও সাংবিধানিকভাবে পরিচালিত। আপনি যদি আবারো স্বপ্ন দেখেন আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য ও সহিংসতা করবেন তাহলে আপনি বোকার রাজ্যে বসবাস করছেন। আমি গণতান্ত্রিক মানুষ, হুমকি-ধামকিতে বিশ্বাস করি না।

খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি আরো বলেন, ধৈর্য ধরুন। ভুলের মাশুল তো আপনাকে দিতেই হবে। ইচ্ছা হলে নির্বাচনে আসবেন, ইচ্ছা হলে আসবেন না। এভাবে সাংবিধানিক রাজনীতি হয় না। সাংবিধানিক রাজনীতি করলে পুরোপুরিই সাংবিধানিক হতে হবে।
তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধ বায়বীয় বিষয় নয়, এতে নেতৃত্ব ছিল। মুজিবনগর সরকার মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছিল। এটাই মুক্তিযুদ্ধের সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংবিধানিক ইতিহাস। এটি বাংলাদেশ গেজেটে লিপিবদ্ধ করা আছে।

সুরঞ্জিত বলেন, বেগম খালেদা জিয়া মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ করে নতুন আওয়াজ তুলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধ করেনি’। তাহলে কে মুক্তিযুদ্ধ করেছে? আপনি তো পাকিস্তানি সেনাদের আশ্রয়ে ছিলেন।

প্রয়াত আব্দুর রাজ্জাকের স্মৃতিচারণ করে সুরঞ্জিত বলেন, অনেকে রাজনীতিবিদদের নিয়ে অনেক কথা বলেন। আব্দুর রাজ্জাক মৃত্যুর সময় অর্থসংকটে ভুগেছেন। তিনি ব্যাপক কর্মীবান্ধব ছিলেন। প্রগতিশীল রাজনীতির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত আব্দুর রাজ্জাক। আমরা যত বেশি তাকে স্মরণ করবো, ততই আগামী বাংলাদেশকে গঠন করতে সাহায্য পাবো।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক হাজী মো. সেলিম এমপি’র সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সতীশ চন্দ্র রায়, সহসম্পাদক আসাদুজ্জামান প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: