রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ চৈত্র ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

বিশ্বনাথে স্বামীর নির্যাতনের স্বীকার ফারজানাকে ওসিসিতে স্থানান্তর



IMG_20001-300x169নিউজ ডেস্ক :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় স্ত্রীকে হাত-পা বেঁধে সারা রাত পিটানোর ঘটনায় লন্ডন প্রবাসী স্বামী আনোয়ার আলীর বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে নির্যাতনের স্বীকার স্ত্রী ফারজানা বেগম বাদি হয়ে বিশ্বনাথ থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেন।

এদিকে, বৃহস্পতিবার ফারজানাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালের ওয়ন-স্টপ ক্রাইসিস সেলে (ওসিসি)ওসিসিতে স্থানাস্তর করা হয়েছে। ওসিসিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি এ অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে।
প্রসঙ্গত, গত সোমবার দিবাগত রাত ১১টার পর আনোয়ার আলী হঠাৎ করে স্ত্রী ফারজানাকে একটি চেয়ারের সাথে হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া যায়।
গত কয়েক মাস আগে বিশ্বনাথ উপজেলার পদনাপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের লন্ডন প্রবাসী ছেলে আনোয়ার আলী সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ থানার আকিলপুর গ্রামের মাহমুদ আলীর মেয়ে ফারজানা বেগমকে (১৯) বিয়ে করেন। বিয়ের ১১ দিন পর আনোয়ার আলী লন্ডন চলে যান। গত এপ্রিল মাসে তিনি ফের দেশে আসেন। দেশে এসেই তিনি ফারজানার উপর নির্যাতন শুরু করেন। প্রায় দিনই তিনি স্ত্রীকে কোন না কোনভাবে নির্যাতন করতেন বলেন ফারজানা গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে অভিযোগ করেন।

এব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ রফিকুল হোসেন অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। তদন্তপূর্বক আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: