মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «  

বিধবার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন সালমান



Salman_Khan_12096বিনোদন ডেস্ক :: সালমান খানউল্টো-পাল্টা নানা কীর্তি ঘটিয়ে ‘ব্যাডবয়’ তকমা পেলেও, বরাবরই হৃদয়ের বিশালতার প্রমাণ দিয়েছেন সালমান খান। নিজের বিয়িং হিউম্যান ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে নিয়মিত নানা দাতব্য কাজ করেন এই ‘দাবাং’ তারকা। সবার গোচরে কিংবা অগোচরে ব্যক্তি উদ্যোগেও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান তিনি। সম্প্রতি ৭৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধা ও তাঁর বিধবা মেয়ের পরিবারের দায়িত্ব নিয়ে আবারও তার প্রমাণ দিলেন সালমান।

এ প্রসঙ্গে বলিউডলাইফ ডটকম জানিয়েছে, কাশ্মীরে ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবির শুটিং শেষ করে চলে যাওয়ার আগ মুহূর্তে বৃদ্ধা জয়না বেগমের ভাগ্য পরিবর্তনের দায়িত্ব নেন সালমান। কয়েক দিন আগে সালমানের শুটিংয়ের খবর পেয়ে ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবির সেটে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে যান জয়না বেগম। তিনি সালমানের নিরাপত্তাকর্মীদের মাধ্যমে সালমানের কাছে সাহায্যের আবেদন জানান। এরপর জয়না বেগমের সঙ্গে কথা বলা শুরু করেন সালমান। তিনি কয়েক ঘণ্টা ধরে জয়না বেগমের সমস্যা ও সংগ্রামের কথা শোনেন।

জয়না বেগম সালমানকে জানান, তাঁর ৪০ বছর বয়সী বিধবা মেয়ে আছে। চার সন্তান লালন-পালন করতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে তাঁর মেয়েকে। বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে জয়না বেগমের বড় নাতি ১৮ বছর বয়সী গহর আহমাদকে ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবির সেটে কাজের ব্যবস্থা করে দেন। শুধু তাই নয়, গহরকে মুম্বাইয়ে নিয়ে গিয়ে নিজের সঙ্গে রেখে কাজের ব্যবস্থা করে দেবেন বলেও কথা দেন সালমান। গহরকে সালমান এও বলেন, ভবিষ্যতে তার পরিবারকে কখনোই কোনো রকম অভাবের মুখে পড়তে হবে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: