শনিবার, ৬ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

বিতর্কিত আইনে কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী গ্রেপ্তার



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতের বিতর্কিত জননিরাপত্তা আইনে অধিকৃত কাশ্মিরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। রাজ্যসভার বর্তমান সদস্য ও ন্যাশনাল কনফারেন্স (এনসি) নেতা ফারুক আগস্টের ৫ তারিখ কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর থেকে গৃহবন্দি ছিলেন। তার বন্দিদশা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় সরকার ও জম্মু-কাশ্মির প্রশাসনকে সে সংক্রান্ত কারণ দর্শনোর নোটিশ দেওয়ার কিছু সময়ের মাথায় তাকে জননিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার দেখানো হলো। বিতর্কিত এই আইনে কোনও ব্যক্তিকে অভিযোগ গঠন ছাড়াই দুই বছরের বেশি সময় ধরে আটকে রাখা যায়।

৫ আগস্ট (সোমবার) ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়। ঐ দিন থেকেই গৃহবন্দি আছেন ফারুক। তার এই বন্দিদশা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না; তা জানতে চেয়ে দেশটির সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন করেছিলেন তামিলনাড়ুর এমডিএমকে নেতা ভাইকো।

দেশটির সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ, বিচারপতি এস এ বোবদে এবং বিচারপতি এস এ নাজিরের বেঞ্চে শুনানি শুরু হলে কেন্দ্র ও জম্মু-কাশ্মির প্রশাসনকে এ বিষয়ে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেন আদালত। সোমবার যখন এই আবেদনের শুনানি শুরু হয়, ঠিক তার কিছুক্ষণ পর ফারুক আব্দুল্লাহকে বিতর্কিত পাবলিক সেফটি আইনে গ্রেপ্তার দেখায় স্থানীয় প্রশাসন।

মার্কিন বার্তাসংস্থা এপি বলছে, ফারুককে সোমবার কাশ্মিরের গ্রীষ্মকালীন রাজধানী শ্রীনগরে তার বাসভবন থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কাশ্মির পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা মুনির খান বলেন, ‘আমরা তাকে গ্রেফতার করেছি। তাকে কতদিন গ্রেপ্তার দেখানো হবে; সেবিষয়ে গঠিত একটি কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে।’

ফারুক আব্দুল্লাহই প্রথম কোনো ভারতপন্থী কাশ্মিরি রাজনীতিক; যাকে বিতর্কিত পাবলিক সেফটি আইনে গ্রেফতার করা হলো। বিতর্কিত এই আইনে গত দুই দশকে অন্তত ২০ হাজার কাশ্মীরিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দেশটির মানবাধিকার কর্মীরা দাবি করেছেন। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ওই আইনকে “নীতিহীন” আখ্যা দিয়েছে। অন্যান্য মানবাধিকার সংস্থাগুলো বলছে, বিরোধীদের কণ্ঠরোধ ও মানবাধিকারের প্রতি শ্রদ্ধা, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহীতা নষ্ট করতেই ভারত এই আইনের অপব্যবহার করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: