মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘শিশুবক্তা’ রফিকুলের মোবাইলে পর্নো ভিডিও!  » «   বর্ণাঢ্য আয়োজনে ভেরনো’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   স্টকহোম বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘গণহত্যা দিবস-২০২১’ পালিত  » «   নিকাব ছেড়ে পশ্চিমা পোশাকে ব্রিটেন ফেরার লড়াইয়ে শামীমা(ভিডিও)  » «   হারুন আর রশিদের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসুন  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক তৃতীয়বারের মত ইজিএন সচিব নির্বাচিত  » «   মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী`র মৃত্যুতে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ফিনল্যান্ডের শোক  » «   সংবাদ ২১ ডটকম সম্পাদক আন্তর্জাতিক `এইজে´র কমিটি সদস্য নির্বাচিত  » «   ফিনল্যান্ডে মহান ভাষা শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন  » «   দেশে চীনের ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছে সরকার  » «   অক্টোবর-নভেম্বরেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকিসন  » «   রিজেন্ট হাসপাতালের এমডি মিজান গ্রেফতার  » «   নকল মাস্ককাণ্ডে ৩ দিনের রিমান্ডে অপরাজিতার শারমিন  » «   পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «  

বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাক করে গরুর মাংসের ছবি!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যখন দ্বিতীয় মেয়াদে শপথ নিচ্ছিলেন ঠিক তখনই তার দল বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাক করা হয়। হ্যাক করার পর ওই সাইটের পেজে ছবিসহ গরুর মাংসের ছয়টি রেসিপি পোস্ট করা হয়। তবে কে বা কারা এই কাজ করেছেন এখনও তা জানা যায়নি।

বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাক হওয়া নিয়ে প্রথম পোস্ট দেন ফরাসি সাইবার নিরাপত্তা গবেষক ইলিয়ট এল্ডারসন। এ নিয়ে তিনি টুইটারে লিখেছিলেন, ‘ডিয়ার @ BJP4India আপনাদের ওয়েবসাইট হ্যাক হয়েছে। এবার ওয়েবসাইট রিস্টোর করতে কতদিন লাগবে?’

অন্য একটি টুইটে তিনি মোদির দলকে ব্যঙ্গ করে বলেন, ‘বিজেপি মানে যে বিফ জনতা পার্টি, এটা তো জানতাম না!’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো এ সম্পর্কে জানায়, গত ৩০ মে হ্যাক হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই বন্ধ হয়ে যায় ওয়েবসাইটটি। এরপর দিল্লি বিজেপির ওয়েবসাইটকে বিজেপি ইন্ডিয়া ওয়েবসাইটে রি-ডিরেক্ট করে দেওয়া হয়।

ভারতে লোকসভা নির্বাচন শুরু হওয়ার আগেও বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাক করা হয়েছিল এবং অনেকদিন পর্যন্ত এটি বন্ধ ছিল। তবে তখন সেখানে কোনো বিফ রেসিপি পোস্ট করা হয়নি।

এবার ভারতে দ্বিতীয় দফায় মোদি সরকার ব্যপক আসন নিয়ে ক্ষমতায় পর থেকেই কট্টরপন্থি হিন্দুদের হাতে নানাভাবে নির্যাতন ও নিপীড়নের শিকার হচ্ছেন দেশটির সংখ্যালঘু মসিলিমরা। সম্প্রতি গরুর মাংস রাখার দায়ে নারীসহ চার মুসলিমকে বেধড়ক পেটানো হয়েছে। এমনকি টুপি পড়ার দায়েও বিহারে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন এক যুবক। এমনই নানা তুচ্ছ অজুহাতে প্রতিদিন নির্যাতনের শিকার হচ্ছে মুসলিমরা। কিন্তু এসব ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ।

২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদি প্রথমবারের মতো ভারতের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার থেকেই গোরক্ষার নামে মুসলিমদের ওপর হামলে পড়েছে কট্টরপন্থি হিন্দুরা। ২০১৫ সালের ২৮ সেপ্টেম্বরে ভারতের উত্তর প্রদেশের দাদরি এলাকায় গরুর মাংস সংরক্ষণের গুজবে মোহাম্মদ আখলাককে পিটিয়ে হত্যা করে গ্রামবাসী। এখনও সেখানে গরুকে হিন্দুত্ববাদী অস্ত্র বানিয়ে মুসলিম নিপীড়ন অব্যাহত রয়েছে।

সূত্র: বিজনেস টুডে

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: