শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

নিউইয়র্কে দুর্বৃত্তের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত



প্রবাস ডেস্ক:: যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে দুর্বৃত্তের গুলিতে মো. শাহেদ উদ্দিন (২৭) নামে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় সোমবার ভোরে জামাইকার রিচমন্ড হিল এলাকার একটি নাইট ক্লাবের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

দুর্বৃত্তের ছোড়া গুলিতে শাহেদ উদ্দিন প্রথমে গুরুতর আহত হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্থানীয় জামাইকা হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আহত হয়ে আরও দুজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

নিহত শাহেদ যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি বাবর উদ্দিনের ছেলে। তার দেশের বাড়ি চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার মগধরা ইউনিয়নে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত একজনের বাড়ি সিলেট এবং অপরজনের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্টের একজন মুখপাত্র বলেন, নাইট ক্লাবের সামনে দুই পক্ষের বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে দুর্বৃত্তরা গুলি চালায়। গুলিবিদ্ধ শাহেদকে অজ্ঞান অবস্থায় হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ময়নাতদন্ত শেষে মঙ্গলবার শাহেদের লাশ তার পরিবারের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে। তাকে নিউজার্সিতে সন্দ্বীপ সোসাইটির কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এই ঘটনায় এখনও কাউকে আটক করা যায়নি। তবে দুর্বৃত্তদের ধরতে পুলিশ এলাকাবাসীর সহযোগিতা চেয়েছেন।

প্রসঙ্গত, শাহেদের বাবা বাবর উদ্দিন একজন নির্মাণ ব্যবসায়ী। শাহেদ পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে দ্বিতীয়। তার মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের সন্দ্বীপ কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শাহেদের খুনিদের গ্রেপ্তারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সন্দ্বীপবাসীসহ প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: