শনিবার, ৩০ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

নারায়ণগঞ্জে ভবনধসের ৪৬ ঘণ্টা পর নিখোঁজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার



নিউজ ডেস্ক:: নারায়ণগঞ্জ নগরীর এক নম্বর বাবুরাইলে চারতলা ভবনধসের ৪৬ ঘণ্টা পর চাপাপড়া ওয়াজিদ (১২) নামে এক স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ২টার দিকে লাশটি উদ্ধার করেন দমকল বাহিনীর উদ্ধারকর্মীরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সহকারী উপপরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন। ৩ নভেম্বর বিকাল সোয়া ৪টায় ফতুল্লা থানার এক নম্বর বাবুরাইলের শেষ মাথায় মুন্সিবাড়ী এলাকার এইচএম ম্যানশন নামে চারতলা ভবনটি ধসে পড়ে। এ ঘটনায় শোয়েব নামে এক স্কুলছাত্র নিহত ও তিনজন আহত হয়।

ঘটনার সময় ভবনের ভেতরেই ছিল ওয়াজিদ। সে ওই ভবনের নিচতলায় আরবি পড়তে গিয়েছিল। ধসেপড়ার সময় ওই ভবনে ওয়াজেদের সঙ্গে পড়ছিল আরেক শিশু স্বপ্না। স্বপ্না জানায়, প্রতিদিনের মতো রোববার বিকালে ওই ভবনে শিক্ষক সোনিয়া বেগমের কাছে তার সঙ্গে ওয়াজেদ ও শোয়েব আরবি পড়ছিল।

তখন হঠাৎ শিক্ষক তাদের বলেন, ভবনটি কাঁপছে। এ কথা শোনার পর পরই তারা তিনজন পড়া রেখে উঠে দাঁড়ায়। এরপর কিছু বুঝে ওঠার আগেই ভবনটি বিকট শব্দে ধসে পড়ে। তারা পানিতে তলিয়ে যায়। পরে অন্যরা কোনোমতে পানি থেকে ওপরে উঠতে পারলেও ওয়াজেদ পারেনি। স্বপ্নাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

প্রায় দুই ঘণ্টা চিকিৎসার পর সে সুস্থ হয়ে ওঠে। পরে স্বজনরা তাকে বাড়িতে নিয়ে আসে। সেখান থেকে রাত ১০টায় দমকল বাহিনীর কর্মীরা তাকে ঘটনাস্থলে নিয়ে আসে। স্বপ্না ফায়ার সার্ভিসকে আরবি পড়ার রুমটি দেখিয়ে দেয়। স্বপ্নার দেখানো তথ্যমতে উদ্ধারকাজ চালায় দমকল বাহিনীর উদ্ধারকর্মীরা। ঘটনার ৪৬ ঘণ্টা পর নিখোঁজ ওয়াজিদের লাশ উদ্ধার করেন তারা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: